শুরুটা ভালো চান বাংলাদেশের নতুন কোচ

২০১৪ সালে সবশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশ কোনো ফরম্যাটে একটি ম্যাচও জিততে পারেনি। পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে চার বছর পর আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এটিই আবার বাংলাদেশের নতুন কোচ হিসেবে স্টিভ রোডসের প্রথম সিরিজ। যেখানে শুরুটা হতে যাচ্ছে টেস্ট দিয়ে। তবে টেস্ট নিয়ে জটিল করে ভাবছেন না তিনি। তার বিশ্বাস, শুরুটা ভালো করতে পারলে বাংলাদেশ খারাপ করবে না।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ পান ইংল্যান্ডের প্রাক্তন উইকেটরক্ষক রোডস। দায়িত্ব পাওয়ার পর আজ দলের সঙ্গে প্রথমবারের মতো অনুশীলনে যোগ দেন তিনি। তবে দেশে তিন দিনের বেশি প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না। শনিবারই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে রওনা দেবে বাংলাদেশ দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজে চলমান শ্রীলঙ্কা সিরিজের মতো বাউন্সি উইকেটই আশা করছেন রোডস।

মিরপুরে আজ সংবাদ সম্মেলনে রোডস বলেছেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাওয়ার আগে আমরা তিনদিন অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছি। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে সিরিজে আমরা দেখেছি, বাউন্সি উইকেট ওদের বোলারদের সামর্থ্যের সঙ্গে যায়। আমার মনে হয় আমাদের সঙ্গে সিরিজেও উইকেট এমনই হবে। আমাদের পেসারদের সেই সবুজ উইকেটের কথা মাথায় রেখেই অনুশীলন করতে হবে। নেটেও আমরা সেভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমার মনে হয়, আমাদের প্রস্তুতি ম্যাচে ওরা বাংলাদেশের মতো উইকেটই রাখবে।’

টেস্ট দিয়ে সিরিজ শুরু হওয়ায় চিন্তার কিছু দেখছেন না রোডস, ‘হ্যাঁ, টেস্ট খুব জটিল কিছু নয়। আমাদের শুরুটা একটু ভালো হতে হবে। এটা কোনো রকেট সায়েন্স না। এখানে আপনাকে মাঠের খেলাটা ভালো খেলতে হবে এবং প্রতিপক্ষের ওপর প্রভাব বিস্তার করতে হবে। আমরা চেষ্টা করবে যেন তারা ম্যাচেই ফিরতে না পারে।’

এই প্রথম কোনো জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছেন রোডস। বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের সম্পর্কেও তার খুব একটা জানাশোনা নেই। তিনি জানালেন, খেলোয়াড়দের কীভাবে জানার চেষ্টা করছেন, ‘সবকিছুই নতুন। আমি আসলে খেলোয়াড়দের নিয়ে খুব বেশি কিছু জানি না। ইন্টারনেটেই বেশি ঘাঁটাঘাঁটি করছি। ইউটিউবে কিছু হাইলাইটস দেখেছি, অনেক মুখ চেনা হয়েছে। সত্যি বলতে, বেশি সময়ও হাতে নেই। তবে ক্রিকেটারদের জন্য যা করা দরকার সবকিছু করতে আমি প্রস্তুত আছি।’

Leave a Reply