শেষ পর্যন্ত অজগরটি খেয়ে ফেলল গ্রামবাসী

ইন্দোনেশিয়ায় মানুষ এবং অজগরের লড়াইয়ে অজগরটির পরাজয় হলে স্থানীয় লোকজন সাপটিকে খেয়ে ফেলে। আর এভাবেই দুর্ভাগ্যজনকভাবে পরিসমাপ্তি ঘটে দৈত্যাকৃতির এই অজগরের।

শনিবার সুমাত্রার বাতাং গানসাল জেলায় একটি পাম বাগানের রাস্তায় সাপটির মুখোমুখি হন নিরাপত্তা কর্মী রবার্ট নাবাবান।

৮ মিটার (প্রায় ২৬ ফুট) লম্বা সাপটিকে নাবাবান ধরার চেষ্টা করলে সাপটি তাকে আক্রমণ করে। মানুষ আর অজগরের এই লড়াই চলতে থাকে।

এক পর্যায়ে গ্রামবাসীরা অজগরটি মেরে ফেলে। এই লড়াইয়ে মারাত্মক জখম হন নাবানান।
নাবানান কেন অজগরটিকে ধরার চেষ্টা করছিলেন সেটা ঠিক বোঝা যাচ্ছে না।

বেশ কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বলছে, তিনি গ্রামবাসীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে এমনটা করতে গিয়েছিলেন। আবার কেউ বলছে, তিনি রাস্তা পরিষ্কার করতে চেয়েছিলেন।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, নাবাবানের বাম হাতে সাপটি গভীর করে ধারাল দাঁত বসিয়ে দেয় এবং অল্পের জন্য হাতটা রক্ষা পায়।

সাথে সাথে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। নাবাবান এখন সেখানেই চিকিৎসাধীন আছেন।
মৃত অজগরটি কিন্তু ছেড়ে দেয়নি গ্রামবাসীরা। প্রদর্শনের জন্য গ্রামের রাস্তায় সেটাকে ঝুলিয়ে রাখা হয়, আর তারপর সাপটাকে কেটে টুকরো টুকরো করে, ভেজে খেয়ে ফেলে তারা।

গত মার্চ মাসে এরকম আরেকটি ঘটনা ঘটে। তবে এর ফলাফলটা মোটেও এরকম ছিল না। সেক্ষেত্রে বরং মানুষটিকে অজগরের পেটে পাওয়া গেয়েছিল। সূত্র: বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares