শেষ বিদায় নিতে এফডিসিতে যাবেন সুবীর নন্দী

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সিনেমার সঙ্গে বেঁধেছিলেন প্রাণ। সিনেমার গান গেয়ে পেয়েছেন আকাশছোঁয়া খ্যাতি ও সম্মান। চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে চারবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

তার কণ্ঠ এদেশের চলচ্চিত্র পেয়েছে কত যে তোমাকে বেসেছি ভালো, পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই, দিন যায় কথা থাকে, আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়, একটা ছিল সোনার কন্যা, ও আমার উড়ালপঙ্খী রে, আশা ছিল মনে মনের মতো কালজয়ী সব গান।

চলচ্চিত্র ও এখানকার মানুষদের সঙ্গে তাই সদ্যপ্রয়াত সুবীর নন্দীর সম্পর্কটা ছিল দারুণ। পেশাদারিত্বের বাইরেও অনেক বন্ধু-স্বজন তিনি পেয়েছেন এখানে। চলচ্চিত্রের কারখানা বিএফডিসিতে কাটিয়েছেন বহু সময়।

আর আসবেন না কখনও। আর গাইবেন না তিনি সিনেমার কোনো গান। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টায় তিনি সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ বুধবার সকাল পৌনে ৭টায় ঢাকায় আসবে যার মরদেহ।

আনুষ্ঠানিকতা সেরে বেলা ১১টায় মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীর শহীদ মিনারে। সেখানে তাকে সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর শেষবারের মতো এফডিসিতে ঘুরে যাবেন সুবীর নন্দী। এখানে তার দীর্ঘদিনের সহকর্মী, বন্ধু ও ভক্ত অনুরাগীরা শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

সুবীর নন্দীর মরদেহ এফডিসিতে আনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নেতা অপূর্ব রানা।

সেখান থেকে মরদেহ নেয়া হবে রামকৃষ্ণ মিশনে। দুপুরে সবুজবাগে বরদেশ্বরী কালীমন্দির ও শ্মশানে একুশে পদক পাওয়া সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীর শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।