শেষ ম্যাচের আগে মেসিদের ট্রেনিং দিতে চান ম্যারাডোনা

২৬ জুন বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ডু অর ডাই ম্যাচ আর্জেন্টিনার। ইতিমধ্যে আইসল্যান্ডকে হারিয়ে আর্জেন্টিনাক শেষ ষোলর লড়াইয়ে টিকিয়ে রেখেছে সুপার ঈগলসরা। মেসিদের মরণবাঁচন ম্যাচের আগে মাঠে নেমে পড়লেন ফুটবল ঈশ্বর দিয়াগো ম্যারাডোনা। ওই ম্যাচের আগে লিওনেল মেসি-সহ বাকিদের সঙ্গে কথা বলতে চান মেক্সিকো বিশ্বকাপের মহানায়ক।

ম্যারাডোনা এখন আর আর্জেন্টাইন ফুটবলের সঙ্গে কোনোভাবে জড়িত নন। ২০১০ বিশ্বকাপে নীল-সাদা জার্সিধারীদের কোচ ছিলেন। কিন্তু এখন তিনি আর্জেন্টাইন ফুটবলের কেউ নন। তার উপরে লিওনেল মেসিদের সঙ্গে তার সম্পর্কও ভালো নয় বলে লেখালেখি হয়েছে সংবাদমাধ্যমে। কিন্তু মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে সেই ম্যারাডোনাই চাইছেন একবার যদি আর্জেন্টাইন ফুটবলারদের সঙ্গে কথা বলা যেত, তাহলে তিনি তার বিখ্যাত ভোকাল টনিক দিয়ে তাতিয়ে দিতেন উত্তরসূরীদের।

চলতি রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ ড্র করে এবং দ্বিতীয় ম্যাচ হেরে আর্জেন্টাইন ফুটবলাররা মানসিক দিক থেকে বিপর্যস্ত। আর্জেন্টিনার মহানায়ক বলছেন, ‘দেশের জার্সি পরে যখনই আমি মাঠে নেমেছি, তখনই নিজের জীবন দিয়ে দিয়েছি।’

সাবেক ফুটবলারদের প্রসঙ্গ টেনে এনে ১০ নম্বর জার্সিধারী এই কিংবদ্ন্তি বলেন, ”সিমিওনে, রেদন্দো, রুগেরি, ক্যানিজিয়া, লুকেরাও একই কাজ করেছে আর্জেন্টিনা জার্সিতে।’

ফুটবলারদের সঙ্গে দেখা করে ম্যারাডোনা ফুটবলারদের বোঝাতে চাইবেন আর্জেন্টিনার জার্সির গুরুত্ব। তিনি বলেছেন, ‘আমি ফুটবলারদের সঙ্গে কথা বলতে চাই। ওদেরকে বোঝাব আর্জেন্টিনার জার্সির ওজন কতটুকু। আশা করি, এটা ওদের মানসিকভাবে চাঙ্গা করে দেবে।’

আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন কি ভেবে দেখবে ম্যারাডোনার প্রস্তাব?

Leave a Reply