সম্পদের তদন্তে আমীর খসরুকে দুদকে তলব

সাবেক এই বাণিজ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে মুদ্রা পাচার ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পেয়ে এই পদক্ষেপ বলে দুদক কর্মকর্তারা দাবি করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলমের সই করা এক নোটিসে আগামী ২৮ অগাস্ট বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যকে সেগুন বাগিচায় দুদক কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে আরও মানুষ নামাতে ‘আমীর খসরুর’ একটি ফোনালাপ সম্প্রতি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে।

তা সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা দাবি তোলার পর এই বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মামলাও হয়।

ওই ঘটনার পর আমীর খসরু ওই ফোনালাপের কণ্ঠ তার নয় বলে দাবি করেন। মামলা হওয়ার পর আত্মগোপনে রয়েছেন তিনি, দলের কোনো কর্মসূচিতেও তাকে দেখা যাচ্ছে না।

এর মধ্যেই আমীর খসরুকে তলবে করে দুদক নোটিস দিল।

দুদকের ওই চিঠিতে অভিযোগের বরাত দিয়ে বলা হয়, তিনি বেনামে পাঁচ তারকা হোটেল ব্যবসা, ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার এবং নিজ, স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের নামে শেয়ার ক্রয়সহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন।

চট্টগ্রামের সাবেক সংসদ সদস্য আমীর খসরুর বন্দর নগরীর চকবাজার থানার মেহেদীবাগের বাসায় ঠিকানায় এ নোটিস পাঠানো হয়।

এই অভিযোগের অনুসন্ধান করছেন দুদক পরিচালক কাজী শফিকুল আলম।

Leave a Reply