সম্পাদকদের সতর্ক দৃষ্টি ও সহযোগিতা চায় ঐক্যফ্রন্ট

অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সম্পাদকদের সহযোগিতা চেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তারা বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ দিয়েছেন।

বললেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে হোটেল লেকশোরে সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। বিকেল সাড়ে ৩টায় এ বৈঠক শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে শেষ হয়।

তিনি বলেন, আমরা তাদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছি। তারা যৌক্তিক যে কোনও বিষয়ে সহযোগিতা করবেন বলে জানিয়েছেন।

এসময় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা হয়েছে। সম্পাদকরা বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন। বিজ্ঞ সম্পাদকরা যেসব মতামত দিয়েছেন, তা চলার পথে আমাদের কাজে লাগবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের বিষয়ে আমরা তাদের থেকে জোড়ালো ভূমিকা প্রত্যাশা করি। তারাও আমাদের অনেক বিষয়ের সঙ্গে যেমন একমত হয়েছেন, বেশ কিছু বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করে মতামত দিয়েছেন।

এদিকে বৈঠকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের সম্পাদকরা বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন রাখেন। নেতারা সেসব প্রশ্নের জবাব রাখেন।

বৈঠকে আরও ছিলেন-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী; জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের ( জেএসডি) আ স ম আব্দুর রব; নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

মতবিনিময় সভায় সম্পাদকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-বিডিনিউজের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী, নিউজ টুডের সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন, প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, নিউ এজ সম্পাদক নুরুল কবীর, আমাদের নতুন সময়ের সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান, সাপ্তাহিক বুধবারের সম্পাদক আমির খসরু, রয়টার্সের বাংলাদেশ ব্যুরো প্রধান সিরাজুল ইসলাম কাদির, এএফপির ব্যুরো প্রধান শফিকুল আলম প্রমুখ।