সাড়ে ৩ হাজার শিশুপর্ন সাইট বন্ধ

চাইল্ড পর্নোগ্রাফি রুখতে সবরকম চেষ্টা করছে ভারত সরকার। গত মাসে বন্ধ করা হয়েছে এই ধরনের প্রায় সাড়ে ৩ হাজার ওয়েবসাইট। সুপ্রিম কোর্টকে জানাল কেন্দ্র। শুধু তাই নয়, চাইল্ড পর্নোগ্রাফি সংক্রান্ত কনটেন্ট সমৃদ্ধ ওয়েবসাইট যাতে স্কুল পড়ুয়াদের ধারেকাছে না আসে সে ব্যাপারে ভাবনাচিন্তার কথাও জানানো হয়েছে আদালতে।

কেন্দ্রীয় সরকার সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছে, স্কুলে জ্যামার বসানো যায় কি না এব্যাপারে CBSE-কে ভাবনাচিন্তা করতে বলা হয়েছে। এর ফলে স্কুলে চাইল্ড পর্নোগ্রাফি সংক্রান্ত কনটেন্টের ব্যবহার রোখা যেতে পারে।

দেশজু়ড়ে শিশু পর্নোগ্রাফি বন্ধ কীভাবে করা যাবে সেই সংক্রান্ত একটি পিটিশনের শুনানি চলছে সুপ্রিম কোর্টে। সঠিক পদক্ষেপ নিতে কোন দিশায় এগোনো হবে তা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জানতে চেয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

পিটিশনটির শুনানি চলছে তিন বিচারপতির বেঞ্চে। নেতৃত্বে বিচারপতি দীপক মিশ্রা। আজ অতিরিক্ত সলিসিটর জেনেরাল পিঙ্কি আনন্দ বেঞ্চকে জানান, স্কুল বাসে জ্যামার লাগানো সম্ভব নয়। তবে এই ধরনের ওয়েবসাইটের ব্যবহার বন্ধে CBSE স্কুলগুলিতে জ্যামার লাগানো যেতে পারে। সরকার CBSE-কে ভাবনাচিন্তা করতে বলেছে।

পাশাপাশি সরকারের তরফে এও জানানো হয়েছে, চাইল্ড পর্নোগ্রাফি রুখতে কী কী ব্যবস্থা নিয়েছে তারা সেই সংক্রান্ত স্ট্যাটাস রিপোর্ট দেবে তারা। আদালত কেন্দ্রকে দু’দিনের মধ্যে এই রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথা বলেছে।

রিট পিটিশনে চাইল্ড পর্গোগ্রাফি রুখতে একাধিক বিষয়ে আলোকপাত করা হয়। যেমন, ইন্টারপোলের তালিকা অনুযায়ী একাধিক সাইট ব্লক করা। এছাড়া অ্যামেরিকার এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চাইল্ড পর্নোগ্রাফি রোখার ক্ষেত্রে বিশ্বজুড়ে একাধিক ব্যবস্থা নিয়েছে বলেও পিটিশনে উল্লেখ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares