সামরিক শক্তিতে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার পর চীন-ভারত বাংলাদেশ ৫৭তম

বিভিন্ন দেশের সামরিক সামর্থ্য নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার (জিএফপি)। অতীতের ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালের তালিকাতেও শীর্ষস্থানটি দখলে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। আর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। এরপরই যথাক্রমে তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থানে রয়েছে চীন ও ভারত। তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৫৭তম। তালিকায় পাকিস্তানের অবস্থান ভারতের ৯ ধাপ নিচে। ১৩তম অবস্থান নিয়ে প্রথমবারের মতো পাকিস্তান এসেছে শীর্ষ ১৫ তে। গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ারের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকা থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। সামরিক সক্ষমতার ভিত্তিতে ওই তালিকা তৈরিতে দেশগুলোর সক্ষমতা ৫০টি বিভাগে পর্যালোচনা করেছে জিএফপি। তারা তাদের পদ্ধতি সম্পর্কে বলেছে, যেভাবে তারা এই তালিকা করে তাতে ছোট দেশ হলেও কোনো কোনো দেশ তালিকার ওপরের দিকে চলে আসতে পারে যদি দেশটির সামরিক বাহিনী প্রযুক্তিগত দিক থেকে এগিয়ে থাকে।

সামরিক সক্ষমতার ভিত্তিতে তালিকা করতে জিএফপি ৫০টি বিভাগ নির্ধারণ করেছে। বিভাগগুলোর মধ্যে রয়েছে সামরিক সরঞ্জাম, প্রাকৃতিক সম্পদ, শিল্প, ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্য, সেনাসংখ্যা প্রভৃতি। দেশগুলোর পারমাণবিক বোমার সংখ্যা এই ক্রম নির্ধারণে বিবেচনা করেনি জিএফপি বরং পারমাণবিক সক্ষমতা আছে কি না সেটিই বিচার করেছে।
সেরা ১৫তে থাকা বাকি দেশগুলো হল- ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জাপান, তুরস্ক, জার্মানি, মিসর, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া ও ইসরায়েল। ওই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৫৭। তালিকার সবচেয়ে নিচে রয়েছে ভুটান।
শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *