সিঙ্গাপুরে পৌঁছেছেন ট্রাম্প

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে অংশ নিতে সিঙ্গাপুরে পৌঁছেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ১০ জুন রোববার স্থানীয় সময় রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে ট্রাম্পকে বহনকারী যুক্তরাষ্ট্রের এয়ার ফোর্স ওয়ানের একটি বিমান সিঙ্গাপুরে বিমানঘাঁটিতে অবতরণ করে। সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভিভিয়ান বালাকৃষ্ণ তাকে স্বাগত জানান। এর আগে কিম সিঙ্গাপুরে পৌঁছেছেন। খবর স্কাই নিউজ, এবিসি নিউজ, রয়টার্স। কানাডায় জি সেভেন সম্মেলন শেষে ৯ জুন শনিবার সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওনা দেন ট্রাম্প ও তার সফরসঙ্গীরা। হোয়াইট হাউসের তথ্য অনুযায়ী, স্থানীয় সময় রোববার রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে তারা সিঙ্গাপুরের পায়া লেবার বিমানঘাঁটিতে পৌঁছায়। সেখান থেকে শাংরি লা হোটেলে যাবে মার্কিন দলটি।

অপেক্ষাকৃত নিরাপদ ও সুবিধাজনক স্থান বিবেচনায় বৈঠকের স্থান হিসেবে সিঙ্গাপুরকে বেছে নেয়া হয়েছে। পৃথিবীর অল্প কয়েকটি দেশের মধ্যে সিঙ্গাপুরে একইসঙ্গে উত্তর কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস রয়েছে। এক বিবৃতিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লী সেইন লুং বলেছেন, ‘ট্রাম্প ও কিমের মধ্যে বহুল কাঙ্ক্ষিত বৈঠকটি আয়োজনের জন্য সিঙ্গাপুর দুই কোটি ডলার খরচ করছে। আমরা স্বেচ্ছায় খরচ করছি এবং এর মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভূমিকা রাখছি; আমাদের গভীর আগ্রহ থেকেই তা করা হচ্ছে।’

এদিকে এর আগে রোববার স্থানীয় সময় ২টা ৩৮ মিনিটে সিঙ্গাপুর পৌঁছেছেন কিম। সিঙ্গাপুরের স্ট্রেইট টাইমস জানিয়েছে, কিম ও তার প্রতিনিধি দল এয়ার চায়না ৭৪৭ বিমানে করে নগর রাষ্ট্রটিতে পৌঁছেছেন। কালো জানালা ও কোরিয়ার পতাকাবাহী একটি বড় ধরনের লিমুজিনকে বিমানবন্দর ত্যাগ করতে দেখা গেছে। বিমানের গতিপথ নজরদারি করে এমন একটি ওয়েবসাইট ফ্লাইটট্রেডার২৪ জানিয়েছে, সকালে পিয়ংইয়ং থেকে কিমের বিমান উড্ডয়ন করে এবং সেটি বেইজিং যায়। সেখান থেকে ফ্লাইট নাম্বার ও রুট পরিবর্তন করে সিঙ্গাপুর আসে কিম ও তার প্রতিনিধি দল। আগামী মঙ্গলবার (১২ জুন) ট্রাম্প-কিমের মধ্যকার ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই বৈঠকে কোরিয়ান উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ও শান্তি আনয়নের বিষয়ে আলোচনা করতে পারেন এই দুই নেতা। উল্লেখ্য, ২০১১ সালে উত্তর কোরিয়ার নেতা হওয়ার পর কিমের একটি মাত্র বিমান সফরের কথা জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *