সিলেটে হেরে ক্রিকেটাররা অনুতপ্ত: স্টিভ রোডস

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ঐতিহাসিক অভিষেক টেস্ট ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ের কারণে জিম্বাবুয়ের মতো দুর্বল দলের বিপক্ষে ১৫১ রানে পরাজিত হয়েছে টাইগাররা।

ক্রিকেটারদের এমন ব্যাটিং বিপর্যয়ে রীতিমতো হতাশ টিম ম্যানেজমেন্ট, ক্রিকেট বোর্ড, সাবেক ক্রিকেটারসহ ভক্ত সমর্থকরা। সিলেটে হেরে খোদ ক্রিকেটাররাও অনুতপ্ত। ঢাকা টেস্টে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ দল। এমনটিই বলছেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ স্টিভ রোডস।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে পরাজয়ের পর জাতীয় দলের প্রধান কোচ বলেন, ‘সিলেটে হেরে ক্রিকেটারা অনুতপ্ত, আমার বিশ্বাস ঢাকায় ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব। আসলে দিনটাই আমাদের খারাপ ছিল। যে কারণে আমরা হেরেছি। চতুর্থ ইনিংসে তিনশোর বেশি রান তাড়া করতে নামলে আসলে কোনো পরিকল্পনাই কাজে আসে না।’

সিলেট টেস্টে জিম্বাবুয়ে যেখানে দুই পেসার নিয়ে খেলে। সেখানে এক পেসারকে খেলিয়েছে বাংলাদেশ দল। আর যে পেস বোলারকে খেলানো হয়েছিল, তার অভিজ্ঞতা মাত্র দুই টেস্টের। তাই প্রশ্ন উঠেছে ম্যাচটিতে একাদশ নির্বাচন নিয়েও।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় দলের কোচ বলেন, ‘জাতীয় লিগে মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আরিফুল হকরা সেঞ্চুরি করেছে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে রান পাওয়ায় তাদের নেয়া হয়েছে। সাকিব-তামিম ছাড়া এর চেয়ে ভালো একাদশ আর হতে পারে না।’

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পায়নি জিম্বাবুয়ে। একদিনের ক্রিকেটে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করা বাংলাদেশ দল টেস্টে খেই হারিয়ে ফেলে।

সিলেট টেস্টে জিম্বাবুয়ের করা ২৮২ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ১৪৩ রানে অলআউট বাংলাদেশ। জয়ের জন্য দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের টার্গেট দাঁড়ায় ৩২১ রান। চতুর্থ ইনিংসে এমন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে ১৬৯ রানে অলআউট বাংলাদেশ। ১৫১ রানের জয় পায় জিম্বাবুয়ে।