সৌদি ভ্রমণের সুযোগ পেল ‘প্রাপ্তবয়স্ক’ নারী!

এবার নতুন এক যুগান্তকারী বিষয়ের অনুমোদন দিল সৌদি সরকার। সৌদি সরকারের ভাষায় প্রাপ্তবয়স্ক (২৫ বছরের বেশি বয়সী) কোনো নারী এখন থেকে একাই সৌদি আরব ভ্রমণ করতে পারবেন। মূলত সৌদি পর্যটনশিল্পের বিকাশের জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

সৌদি কমিশন অব ট্যুরিজম অ্যান্ড ন্যাশনাল হেরিটেজ-এর পক্ষ থেকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে ২৫ বছরের কম বয়সী নারীদের জন্য এই অনুমোদন প্রযোজ্য নয়। তারাও ভ্রমণ করতে পারবেন, তবে সঙ্গে অবশ্যই থাকতে হবে পরিবারের যেকোনো একজন সদস্য।

কমিশনের লাইসেন্স বিভাগের মহাপরিচালক ওমর আল-মুবারক বলেন, এটি হবে একটি সিঙ্গেল-এন্ট্রি ভিসা। এর মেয়াদকাল ৩০ দিন। যে সব ২৫ বছরের বেশি বয়সী নারীরা ইতিমধ্যে সৌদি আরবে রয়েছেন তাদের জন্যই মূলত এই ভিসা। এটি দিয়ে তারা ভ্রমণ, হজ ও ওমরা পালন করতে পারবেন।

২০১৮ সালের প্রথম তিন মাসের মধ্যেই এই ট্যুরিজম ভিসা ইস্যুর প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে সৌদি কমিশন অব ট্যুরিজম অ্যান্ড ন্যাশনাল হেরিটেজ।

‘ইতিমধ্যেই এই ভ্রমণ ভিসার প্রধান ও নির্বাহী আদেশ-প্রত্যাদেশগুলো চূড়ান্ত করা হয়েছে। কমিশনের আইটি বিভাগ এই ভ্রমণ ভিসার বিষয়টিকে ইলেকট্রনিক সিস্টেমের মধ্যে আনার ব্যাপারে সব কাজ প্রায় শেষ করে ফেলেছে। সৌদির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও জাতীয় তথ্যকেন্দ্র তাদের এই বিষয়ে সহযোগিতা করছে,’ বলেন ওমর আল-মুবারক।

ধারণা করা হচ্ছে, ভ্রমণ ভিসা-সংক্রান্ত এই পদক্ষেপ সৌদ আরবের পর্যটনশিল্পের বিকাশে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। সৌদি আরবের ভিশন ২০৩০ বাস্তবায়নে এই পর্যটন ভিসাবিষয়ক উদ্যোগ অনেক বড় ভূমিকা রাখতে পারে বলেও মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকমহল।

সূত্র : আরব নিউজ, খালিজ টাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *