স্ত্রীর পরামর্শে অসুস্থ মাকে ছাদ থেকে ফেলে খুন!

অসুস্থ মাকে নিয়ে বিরক্ত হয়ে পড়ছিল ছেলে ও তার বৌ। এছাড়া ছোট বোনের বিয়ে দেওয়া নিয়েও ছিলো অশান্তি। তাই সব অশান্তি দূর করতে মাকে ছাদ থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় সন্দীপ নাথওয়ানি (৩৬)।

পেশায় সন্দীপ নাথওয়ানি একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর। একজন শিক্ষকের এমন আচারণ সত্যি অকাম্য। হত্যার পর মায়ের মৃত্যু দুর্ঘটনা বা আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করে সন্দীপ। কিন্তু শেষে পুলিশের জেরার মুখে নিজের মাকে খুনের কথা স্বীকার করেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বছর ২৯ সেপ্টেম্বর এ ঘটনা ঘটে। সন্দীপের মা, জয়শ্রীবেন (৬৪) বেশ কিছু দিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। তবে তার মৃত্যুর পর নাথওয়ানি পরিবার দাবি করে, মাথার অসুখে ভুগছিলেন বৃদ্ধা। ছাদে উঠে টাল সামলাতে না পেরে পড়ে গিয়েছেন। অথবা আত্মহত্যাও করে থাকতে পারেন তিনি।

কিন্তু একটা বেনামি চিঠিতে মোড় ঘুরে যায় তদন্তের। চিঠিতে নাথওয়ানিদের বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিলো। পরে সিসিটিভি ফুটেজে দেখা য়ায়, সন্দীপই ধরে ধরে মাকে ছাদে নিয়ে যায় এবং কিছুক্ষণ পর একাই নামে ছাদ থেকে। এরপরপরই একজন ছুটে এসে তাকে বৃদ্ধার পড়ে যাওয়ার খবর দেন। পরে সন্দীপ এমন ভাব করে যেন কিছুই জানে না সে।

পুলিশের দাবি, প্রথমে সন্দীপ খুনের কথা স্বীকার করেনি। কিন্তু পরে জেরার মুখে খুনের কখা স্বীকার করে সে।

Leave a Reply