স্বামীকে মারতে গিয়ে শ্বশুরবাড়ির ১৫ জনকে মারলেন স্ত্রী

কনের অমতে বিয়ে করলে সেটা পরবর্তীতে বরের পরিবারের সদস্যদের যে প্রাণও কেড়ে নিতে পারে তার একটা উদাহরণ হয়ে থাকলো পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুজাফফরগড়। আর এ কারণেই প্রাণ দিতে হলো স্বামীর পরিবারের ১৫ সদস্যকে।
খবর দি ইনডিপেডেন্টের।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সোমবার এই ঘটনার দুই মাস আগে মুজাফফরগড়ের দৌলতপুরার আমজাদের সঙ্গে বিয়ে হয় কনে আসিয়ার। কিন্তু বিয়েতে কোনো মতই ছিল না তার। আবার বিয়ের পরও প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছিলেন আসিয়া। শেষমেশ স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, সোমবার আমজাদকে দেয়া দুধের সঙ্গে বিষ মেশান আসিয়া। সেই দুধ তিনি স্বামীকে পান করতে দেন। কিন্তু আমজাদ কোনো কারণে সেই দুধ পান করেননি। পরে সেই দুধ দিয়ে লাচ্ছি তৈরি করেন আসিয়ার শাশুড়ি।
যা বাড়ির ২৭ জন সদস্য খায়। এর শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি ১২ অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

আটকের পর পুলিশ হেফাজতে আসিয়া স্বীকার করেন যে তিনি স্বামী আমজাদকে হত্যার উদ্দেশ্যেই দুধে বিষ মিশিয়েছিলেন।

মুজাফফরগড়ের সিনিয়র পুলিশ অফিসার ওয়াইস আহমাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, আসিয়া ও তার প্রেমিক, আসিয়ার এক আত্মীয়কে গ্রেফতার করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares