২০১৮ সালের শেষের দিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন: শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনেই ২০১৮ সালের শেষ দিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে তিনি একথা জানান। দেশের গণতান্ত্রিক ধারা সমুন্নত রাখতে আগামী নির্বাচনে সব দলকে অংশ গ্রহণের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। ২৬ মিনিটের এ ভাষণে সরকারের উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন।

ভাষণে ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকানোর নামে সারাদেশে বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতা কথা স্মরণ করিয়ে দেন। বলেন, আগামী নির্বাচনকে ঘিরে দেশে এমন অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা হতে পারে। এ ব্যাপারে জনগণকে সর্তক থাকতে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

ভাষণে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সংবিধান অনুযায়ী ২০১৮ সালের শেষের দিকে একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কীভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেটা আমাদের সংবিধানে স্পষ্টভাবে বলা আছে। আর সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের আগে নির্বাচন কালীন সরকার গঠিত হবে।

আর সেই সরকার নির্বাচন কালীন সময়ে নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করবেন। আমি আশা করি নির্বাচন কমিশনের সকল নিবন্ধিত দল একাদশ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। এবং দেশের গণতান্ত্রিক ধারা সমুন্নত রাখতে সকলেই সচেষ্ট হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *