৫০০০ শয্যাসঙ্গী থাকা সত্ত্বেও ডায়ানাকে চেয়েছিলেন যে রাজা!

স্পেনের সাবেক রাজা হুয়ান কার্লোসের ৫০০০ শয্যাসঙ্গী থাকা সত্ত্বেও তিনি প্রয়াত প্রিন্সেস ডায়ানার ভালোবাসা পাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন! তার সঙ্গে প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার স্বপ্নও দেখেছিলেন। কার্লোস শিকার করতে ভালোবাসতেন।
স্কি খেলতেন। প্রমোদতরী ইয়াটে করে ঘুরতে পছন্দ করতেন এবং নারীদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ককে ভালোবাসতেন। তিনি যে নারীভোগী তা স্পেনের মাদ্রিদের রাজ পরিবারের সবার কাছেই ছিল ওপেন সিক্রেট। এসব কথা ‘হুয়ান কার্লোস: দ্য কিং অব ৫০০০ লাভারস’ শীর্ষক বইয়ে লিখেছেন সামরিক ইতিহাসবেত্তা মার্টিনেজ ইংলেস।

জানা যায়, স্পেনের বর্তমান রাজা ফেলিপ। তার পিতা হুয়ান কার্লোস। মার্টিনেজ ইংলেস তার বইয়ে লিখেছেন, রাজা ফেলিপের মা রাণী সোফিয়ার সঙ্গে বিয়ের পরও তার পিতা হুয়ান কার্লোস কয়েক শ’ নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। ওই বইয়ে হুয়ান কার্লোসকে সেক্স এডিক্ট হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। সাবেক এই রাজার বয়স এখন ৭৯ বছর। বলাবলি আছে, তিনি যেসব নারীকে বাগে এনেছিলেন তাদের মধ্যে প্রিন্সেস ডায়ানা অন্যতম। এখন থেকে ৫ বছর আগে স্পেনের একজন লেখক লিখেছেন, হুয়ান কার্লোস ১৫০০ নারীর সঙ্গে শয্যা গ্রহণ করেছেন। কিন্তু নতুন যে বইটির কথা বলা হচ্ছে তার লেখক মার্টিনেজ ইংলেস স্পেনের সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত একজন পদস্থ কর্মকর্তা।

তিনি হুয়ান কার্লোসের যৌন আসক্তির বিস্তারিত তুলে ধরেছেন। তিনি লিখেছেন, মাত্র ৬ মাস সময়ের মধ্যে সাবেক রাজা কার্লোসের ছিল ৬২ জন প্রেমিকা। ১৯৭৬ থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত সময়কে তার প্রেমময় সময় বলা হয়। এ সময়ে বিছানায় তিনি ২১৫৪ জন নারীর সঙ্গ ভোগ করেছেন। ২০০৫ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যকার সময়টাকে তার জন্য ‘শীতকালীন সময়’ বলা হয়। এ সময়ে তার বয়স ছিল ৬৭ থেকে ৭৬ বছর। এ সময়ে তার প্রেমিকার সংখ্যা আস্তে আস্তে কমে আসতে থাকে।

মার্টিনেজ ইংলেস লিখেছেন, এ সময়ে তিনি ১৯১ জন বিভিন্ন প্রেমিকার সঙ্গে শয্যা গ্রহণ করেছেন। তিনি যখন স্পেনের মিলিটারি একাডেমিতে ছিলেন তখন সাবেক রাকা কার্লোসের সঙ্গে ৩৩২ জন নারীর যৌন সম্পর্ক ছিল। মার্টিনেজ ইংলেস লিখেছেন, কার্লোসের বয়স যখন ১৬ বছর তখন থেকেই তার জীবনে প্রথম প্রেমিকা আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares