৫০ ওভারে ৪৯০ রানের রেকর্ড কিউই মেয়েদের

অসাধারণ ব্যাটিং নৈপূণ্যে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪৯০ রান করেছেন কিউই মেয়েরা। এই রানের মধ্য দিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে বিশ্ব রেকর্ড গড়লো নিউজিল্যান্ড নারী ক্রিকেট দল।

শুক্রবার (৮ জুন) ডাবলিনে স্বাগত আইরিশ নারীদের বিপক্ষে এ রেকর্ড গড়েন কিউই মেয়েরা। প্রথমে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড।  দলের ওপেনার সুজি বেটস ১২৭ বলে ১৫১ করেন; ২৪টি চার ও দুটি ছক্কার মারে এ রান করেন তিনি। আর দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান মেডি গ্রিনের ১২১ রানের বদৌলতে ৪৯০ রানের পাহাড় গড়ে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। ৪ উইকেট হারিয়ে আইরিশ মেয়েদের ৪৯১ রানের জয়ের লক্ষ্য দেয় তারা।

তবে আক্ষেপ কিছুটা থেকেই যায়, অল্পের জন্য ওয়ানডে ইতিহাসে ৫০০ রান যুক্ত হতে পারেনি। শুধু নারী নয়, ক্রিকেট ইতিহাসেই ৪৯০ রান রেকর্ড স্কোর।

এর আগে ১৯৯৭ সালে ক্রাইস্টচার্চে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪৫৫ রানের আগের রেকর্ডও কিউই মেয়েরা।তবে ছেলেদের ওয়ানডেতে এখনও সাড়ে ৪০০ রান হয়নি। সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ৪৪৪, যা রয়েছে ইংল্যান্ডের মুকুটে।

অন্যদের মধ্যে এসি কের করেছেন ৮১ করেছেন, তিনি অপরাজিত থাকলেও জেএম ওয়াটকিন ৬২ রান করে লেউসের বলে র‌্যাচেল ডালনেইকে ক্যাচ দিয়ে সাজ ঘরে ফিরে যান। আয়ারল্যান্ডের চারা মুরাই বল হাতে ১০ ওভারে ১১৯ রান দেন। পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ছেলে কিংবা মেয়েদের ক্ষেত্রে ওয়ানডের ইতিহাসে এটিই সর্বোচ্চ রান দেওয়ার রেকর্ড।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩৫.৩ ওভারে মাত্র ১৪৪ রানে গুটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ডের ইনিংস। আইরিশ নারী দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান ৩৭ করেছেন এল ডেলানি, কাসপেরেকের বলের এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়ে ফিরে যেতে হয় তাকে।

আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ৩৫ করেছেন জে গ্রে; ৫৩ বলে এই রান করে কিউই বোলার কাসপেরেকের বলে রউইকে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি।

স্কোর: 
নিউজিল্যান্ড: ৪৯০/৫০
সুজি বেটস ১৫১ (৪*২৪, ৬*২), জেএম ওয়াটকিন ৬২ (৪*১০, ৬*০), এমএল গ্রিন ১২১ (৪*১৫, ৬*১)। আয়ারল্যান্ডের চারা মুরাই ১০ ওভারে ১১৯, উইকেট ২।

আয়ারল্যান্ড: ১৪৪/৩৫.৩
এল ডেলানি ৩৭ (৪*৪, ৬*০), জে গ্রে ৩৫ (৪*৫, ৬*০)। কিউই নারী দলের বোলার ২.৩ বলে ১৭ রান দিয়ে উইকেট পেয়েছেন চারটি।

 

Leave a Reply