মক্কা-মদিনার নিরাপত্তায় সেনা পাঠাবে বাংলাদেশ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী বলেছেন সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনা যদি হুমকিতে পড়ে বা আক্রান্ত হয় তাহলে সৈন্য পাঠাবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে অংশগ্রহণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব সফরকে সামনে রেখে এক সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদ আলী এ মন্তব্য করেন।

কিন্তু, কেন মক্কা ও মদিনার হুমকিতে পড়া বা আক্রান্ত হওয়ার প্রশ্ন আসছে তার কোন ব্যাখ্যা দেননি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদির আরবে আরব-মুসলিম-যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন যাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ আইএস বিরোধী জোটের সদস্যরা অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

সম্মেলনে প্রায় বিশটি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানগণ যোগ দেবেন বলে রাজনৈতিক ভাবে এটিকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী বলছেন মক্কা ও মদিনা মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও পবিত্রতম স্থান।

সে কারণেই মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠতা দেশ হিসেবে বাংলাদেশের দায়িত্ব রয়েছে বলে মনে করে বাংলাদেশ।

কিন্তু সামরিক জোটে গিয়ে কি লাভ হবে বাংলাদেশের ?এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সৌদি ও ইরানের দ্বন্দ্বের মধ্যে ঢুকে যাচ্ছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন এর কোন সম্ভাবনা নেই।

বরং তার মতে প্রস্তাবিত সামরিক জোট মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আনতে সহায়ক হবে. এমনকি ইসরায়েল ফিলিস্তিন বিরোধী নিরসনেও সেটি সহায়ক হবে বলে মনে করেন তিনি।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশ সেটাই চায়”।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বক্তৃতায় বলেন, ” রিয়াদে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলনে আগামী দিনে সন্ত্রাস মোকাবেলা, ফিলিস্তিন সংকটসহ এ অঞ্চলে চলমান ভূ-রাজনৈতিক বিষয়াবলী নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে বলে ধারণা করা যায় এবং প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সুদৃঢ় অবস্থান তুলে ধরবেন”।–বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares