সেই সুইসাইড নোটটি সালমানেরই লেখা: পিবিআই

Advertisements

দেশের তুমুল জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ। ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে রাজধানীর নিউ ইস্কাটন গার্ডেন এলাকায় নায়কের বাসায় পাওয়া তার মরদেহ। সেই সময়ে সালমানের বাসা থেকে একটি সুইসাইড নোট বা আত্মহত্যার চিঠি উদ্ধার করে পুলিশ।

চিঠিতে লেখা, ‘আমি চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার, পিতা-কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, ১৪৬/৫, গ্রিনরোড, ঢাকা-১২১৫ ওরফে সালমান শাহ এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে আজ অথবা আজকের পরে যেকোনো দিন মৃত্যু হলে তার জন্য কেউ দায়ী থাকবে না। স্বেচ্ছায়, সজ্ঞানে, সুস্থ মস্তিষ্কে আমি আত্মহত্যা করছি।’

দীর্ঘ ২৩ বছর আগের লেখা সালমান শাহর সুইসাইড নোটটি আবার তুলে ধরে পিবিআই। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সালমান শাহর হত্যার রহস্য উদঘাটন নিয়ে ডাকা এক সংবাদ সম্মেলনে পিবিআইয়ের প্রধান বনজ কুমার মজুমদার জানান, দীর্ঘ এই তদন্তে হত্যার কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, সেই সময়ের একটি সুইসাইডাল নোট উদ্ধার করা হয়। আমরা সেটা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। হ্যান্ড রাইটিং এক্সপার্টকে আমরা সুইসাইট নোটটি দেখিয়েছি। উনি হাতের লেখা দেখে-তা সালমান শাহর বলে চিহ্নিত করেছেন।

নায়ক সালমান শাহকে হত্যা করা হয়নি। তিনি পারিবারিক কলহের জেরে আত্মহত্যা করেছিলেন বলে জানিয়েছে তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। রাজধানীর ধানমন্ডিন্থ প্রধান কার্যালয়ে সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদার।