ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন পেলেন বাইডেন

Advertisements

আনুষ্ঠানিকভাবে ডেমোক্র্যাটদের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে অভিষিক্ত হলেন জো বাইডেন। মঙ্গলবার দলীয় সম্মেলনে প্রবীণ এ রাজনীতিবিদকে ভূয়সী প্রশংসায় ভাসিয়েছেন সাবেক শীর্ষ নেতারা। চার দিনব্যাপী সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে অংশ নেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও জিমি কার্টার এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও রিপাবলিকান নেতা কলিন পাওয়েলসহ খ্যাতনামা রাজনীতিবিদরা।

এ বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে হচ্ছে ডেমোক্র্যাটদের সম্মেলন। আয়োজনের প্রথমদিন জ্বালাময়ী বক্তব্য রেখে প্রশংসা কুড়িয়েছেন সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা এবং সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। দ্বিতীয় দিন রেকর্ডকৃত ভাষণে বক্তব্য রেখেছেন বিল ক্লিনটনসহ অন্যরা।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তব্যে ক্লিনটন বলেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন আমরা বিশ্বকে নেতৃত্ব দিচ্ছি। অথচ আমরাই একমাত্র বড় শিল্প অর্থনীতি যাদের বেকারত্বের হার তিনগুণ হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এমন সময়ে ওভাস অফিসের একটি নির্দেশনা কেন্দ্র হওয়া উচিত। কিন্তু এর পরিবর্তে সেটি হয়ে উঠেছে ঝড়ের কেন্দ্র। সেখানে রয়েছে শুধু অরাজকতা।’

Biden

সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের মন্ত্রিসভার সদস্য কলিন পাওয়েল ট্রাম্পকে মিথ্যাবাদী উল্লেখ করে বাইডেনের পক্ষে প্রচারণা চালান। তার আগে সোমবারও প্রায় আধা ডজন রিপাবলিকান নেতা বাইডেনের সমর্থনে ডেমোক্র্যাটদের সম্মেলনে অংশ নেন।

প্রয়াত রিপাবলিকান সিনেটর জন ম্যাকেইনের স্ত্রী সিনডি ম্যাকেইন সম্মেলনে বাইডেনের সঙ্গে তার স্বামীর বন্ধুত্বের কথা জানান। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ট্রাম্পের নেতৃত্বের ওপর তীব্র আক্রমণ করে ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

বুধবার এবং বৃহস্পতিবারও চলবে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির এ নির্বাচনী সম্মেলন। এতে বক্তব্য রাখবেন এবারের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদের মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কমলা হ্যারিস, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ২০১৬ সালের নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। বৃহস্পতিবার জো বাইডেনের বক্তব্যের মাধ্যমে শেষ হবে এ সম্মেলন।

সূত্র: বিবিসি