নাম পাল্টে সুশান্তর সঙ্গে থাইল্যান্ড যান সারা

Advertisements

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্ত শুরু হওয়ার পর থেকেই বেরিয়ে আসছে একের পর এক তথ্য। সম্প্রতি রিয়া চক্রবর্তী দাবি করেন, ২০১৮ সালে বন্ধুদের নিয়ে থাইল্যান্ডে গিয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

পাশাপাশি তিনি আরো বলেন, সুশান্ত যে শুধু তার জন্যই খরচ করেছেন, এমন নয়। ২০১৮ সালে সুশান্ত তার ৬ বন্ধুকে নিয়ে ব্যাংকক (থাইল্যান্ড) বেড়াতে যান। ২০১৮ সালের ওই ভ্রমণের সময় সুশান্তের ৭০ লাখ খরচ হয়েছিল বলেও দাবি করেন রিয়া। অভিনেত্রীর এই দাবির পর যখন শোরগোল শুরু হয়ে যায়, সেই সময় প্রকাশ্যে আসে স্যামুয়েল হাউকিপের বক্তব্য।

সুশান্তের কাছের বন্ধু স্যামুয়েল হাউকিপ দাবি করেন, ২০১৮ সালে সারা আলি খানও সুশান্তের সঙ্গে থাইল্যান্ডে যান। স্যামুয়েলের ওই দাবির পর ফের প্রকাশ্যে আসে আরো বেশ কিছু তথ্য। রিয়া জানান, ২০১৮ সালে সুশান্তের সঙ্গে সারা যখন থাইল্যান্ডে যান, তখন তিনি নাম পাল্টে ফেলেন। ‘সারা সুলতান’ নাম নিয়ে সুশান্তের সঙ্গে থাইল্যান্ডে যান সাইফ-কন্যা। সুশান্তের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা যাতে বাইরে না বের হয়, তার জন্যই নিজের নাম পাল্টে ফেলেন সারা। পাশাপাশি সারার জন্যই নাকি সুশান্ত ব্যক্তিগত বিমান ভাড়া করে মুম্বাই থেকে থাইল্যান্ডে যান। প্রকাশ্যে আসে এমন দাবিও।

শুধু তাই নয়, থাইল্যান্ড থেকে ফেরার পর মুম্বাই বিমানবন্দরে স্যামুয়েল হাউকিপের সঙ্গে বাইরে বের হন সারা আলি খান। সুশান্ত বেরিয়ে যান বিমানবন্দরের অন্য গেট দিয়ে। সম্প্রতি স্যামুয়েলের সঙ্গে সারার সেই ছবিও প্রকাশ্যে আসে। ‘কেদারনাথ’ সিনেমার শুটিং এবং প্রমোশনের সময় সারা আলি খানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান সুশান্ত। পরবর্তী সময়ে বলিউড ‘মাফিয়াদের’ চাপে পড়েই নাকি সুশান্তের কাছ থেকে সরে গিয়েছিলেন সাইফ-কন্যা, দাবি করেন স্যামুয়েল।