Advertisements

বিশ্বকাপে প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে সিনিয়রদের অনেকেই ছিলেন ম্লান। বিশেষ করে অধিনায়ক মাশরাফী বিন মুর্তজা ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। পুরো আসরে মাত্র একটি উইকেট শিকার করেছেন। বেশিভাগ ম্যাচেই নিজের কোটার দশ ওভার শেষ করতে পারেননি। আর অধিনায়কের এমন নিষ্প্রভতা দলের পারফরম্যান্সে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে বলে মনে করেন বিশ্বকাপ দলের সহকারী অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

সাকিবের মতে, অধিনায়ক ভালো করলে তা অন্যদের জন্য অনুকরণীয় হয়ে উঠে। কিন্তু মাশরাফী তেমনটি করতে পারেননি; যার কারণে দলও খেই হারিয়েছে।

সম্প্রতি একটি জাতীয় দৈনিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সাকিব বলেন, আমি সব সময়ই বিশ্বাস করেছি যে এবার অনেক দূর যাওয়া সম্ভব। হয়তো সবার সাহায্য পেলে আমরা সেমিফাইনালেও চলে যেতাম। অনেক কারণে অনেক সময় সবকিছু ঠিকঠাক হয় না। কোনো খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্স ভালো না হলে সে দলের চেয়ে নিজেকে নিয়ে বেশি ভাবতে শুরু করে। তখন সমস্যা হয়ে যায়।

সাকিবের মতে, মাশরাফির সঙ্গেও একটি ঘটনা ঘটেছিল। তার কথায়, যেহেতু অধিনায়ক পারফর্ম করছিল না, এটা বড় সমস্যা। তার জন্যও, দলের জন্যও। অধিনায়ককে পারফর্ম করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। ঐ জায়গাতে আমরা অনেক পিছিয়ে গেছি। তারপরও অসম্ভব ছিলো না। বিশ্বকাপে আমরা শুরুটা করি খুবই ভালো। কিন্তু পরের দিকে তা ধরে রাখতে পারিনি।’

বর্তমানে জাতীয় ওয়ানডে দলের নেতৃত্বে আছেন মাশরাফী। বাকি দুই ফরম্যাট-টেস্ট এবং টি-২০’র নেতৃত্ব সাকিবের কাঁধে। অদূর ভবিষ্যতে তিন ফরম্যাটের দায়িত্বই নিতে হতে পারে তার। এ জন্য মানসিকভাবে কতটা প্রস্তুত? এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, মানসিকভাবে আমি টেস্ট ও টি-২০’র নেতৃত্বের জন্যও প্রস্তুত নই। তবে দলটা এখন ভালো অবস্থায় নেই। নিজেও বুঝতে পারছি, দলটাকে মোটামুটি একটা অবস্থায় আনতে হলে আমি অধিনায়ক হলে ভালো। নয়তো কোনো সংস্করণেই অধিনায়কত্ব করার ব্যাপারে আমি নিজে তেমন আগ্রহ পাচ্ছি না। অধিনায়কত্ব না করলে বরং নিজের খেলায় মনোযোগ দিতে পারব। সেটাও দলের কাজে লাগবে।

সাকিব চান নতুনদের মধ্য থেকে নেতৃত্ব উঠে আসুক। তিনি বলেন, আমরা তো ২০-২২ বছর বয়সে অধিনায়কত্ব নিয়েছি। এখন ওদের বয়স ২৬-২৭ হয়ে গেছে। যতক্ষণ না দায়িত্ব দেবেন, আপনি তো জানবেন না ওদের মধ্যে কিছু আছে কি না। ২২ বছর বয়সে যখন আমাকে অধিনায়ক করা হয়েছিল, কেউ কি জানত আমার মধ্যে কিছু আছে না নেই? সামনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। আগামী চার বছর নিয়ে এখন থেকেই পরিকল্পনা করা উচিত।

সময় টিভি

By Abraham

Translate »