লাইফস্টাইল

চুলে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহার করলে কী হয়?

Advertisements

চুল আমাদের শরীরের এমনই এক অভিমানী অংশ যার যত্ন নিতে একটু অবহেলা করলেই বিশ্রী রূপ ধারণ করে। রুক্ষ, শুষ্ক আর মলিন হয়ে যায়। আর কিছু না হোক, নিয়মিত তেলটুকুও যদি না ব্যবহার করেন, তাহলে চুল তো সৌন্দর্য হারাবেই। চুলের সৌন্দর্য নষ্ট হওয়া মানে আপনার পুরো সৌন্দর্যেই তার ছাপ পড়বে।

চুলের সৌন্দর্য ফিরে পেতে আপনাকে অনেক বেশি সাহায্য করতে পারে ভিটামিন ই ক্যাপসুল। এটি আমাদের ত্বকের যত্নেও সমান কার্যকরী। তবে আজ আমরা জেনে নেবো চুলের যত্নে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহারের নিয়ম-

কেন ব্যবহার করবেন: 
প্রতিটি জিনিস ব্যবহারের আগে তা ব্যবহারের উপকারিতা জেনে নিয়ে তবেই ব্যবহার করুন। এতে একটা জিনিস সব সময় আপনার জন্য স্পষ্ট হয়ে যায় যে, আপনার ব্যবহারের দরকার আছে কি নাকি নেই।

Chul

ভিতামিন ই ক্যাপসুলে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট মাথার স্ক্যাল্পের জন্য দারুণ স্বাস্থ্যকর একটি উপাদান। যা চুলের গ্রোথ বা বৃদ্ধিতে উপকারে আসে, দ্রুত কাজ করে। অতিরিক্ত চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে। চুলের যাবতীয় কেয়ার নিতে সক্ষম ভিটামিন ই ক্যাপসুল।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:
মেডিকেল স্টোর থেকেই পেয়ে যাবেন এই ক্যাপসুল। দাম ২০ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে। আপনার যদি লম্বা চুল হয় তাহলে ৭ থেকে ৮টি ক্যাপসুল লাগবে। ছোট চুল হলে ৪ থেকে ৫ টি ক্যাপসুল।

এবার একটি কাঁচের বাটিতে ক্যাপসুল থেকে তেল বের করে নিন সবার প্রথমে। নারিকেল তেল ২ চা চামচ মতো মেশান। ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার এতে ক্যাস্টর অয়েল মেশান ২ চা চামচ। তিনটি উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে ৫ মিনিট মতো রেখে দিন।

southeast

একটি বড় বাটিতে পানি গরম করে সেই গরম পানির মধ্যে উপকরণ মেশানো বাটি রেখে নাড়তে থাকুন ৩ থেকে ৪ মিনিট মতো।
এরপর একটি বোতলে ভরে রাখুন।

রাতে শোবার আগে এই তেলটি ভালো করে মাথায় ম্যাসাজ করে অ্যাপ্লাই করুন। সকালে উঠে শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে ৩ বার এটি ব্যবহার করুন অবশ্যই।

নিয়মিত এক থেকে দু’মাস যদি এটি সঠিক ভাবে ব্যবহার করেন আপনার চুলের যাবতীয় সমস্যা কমে যাবে। (চুল পড়া বন্ধ হওয়া থেকে নতুন চুল গজানো সব সম্ভব ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহার করে।