আন্তর্জাতিক

আঘাত হেনেছে প্রলয়ঙ্করী ডোরিয়ান

Advertisements

বাহামার গ্রেট আবাকো ও গ্রান্ড বাহামা দ্বীপে তাণ্ডব চালাচ্ছে পাঁচ মাত্রার প্রলয়ঙ্করী হারিকেন ডোরিয়ান।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ঘণ্টায় প্রায় তিনশ কিলোমিটার গতির বাতাসের শক্তি নিয়ে আঘাত হেনেছে এই ঝড়।

এটি এ যাবৎকালে আটলান্টিক অঞ্চলের দ্বিতীয় শক্তিশালী এবং বাহামায় আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী হারিকেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানিয়েছে, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ১৮ থেকে ২৩ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাসে উপকূল প্লাবিত হয়েছে।

মহাবিপজ্জনক হারিকেন ডোরিয়ান ঝড়ের মূল অংশটি গ্রেট আবাকো দ্বীপ ও গ্রান্ড বাহামা দ্বীপে তাণ্ডব চালিয়ে ফ্লোরিডার পূর্ব উপকূলের দিকে যাচ্ছে।

পাঁচ ধাপের সাফির-সিম্পসন উইন্ড স্কেলে ডোরিয়ানকে প্রাণসংহারী পাঁচ ক্যাটাগরির হারিকেন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী পাঁচ দিন পর্যন্ত ডোরিয়ান হারিকেন হিসেবে থেকে যাবে।

 

 

রয়টার্স জানিয়েছে, রোববার রাতে আবাকো দ্বীপের এলবোকে এলাকা দিয়ে ডোরিয়ান স্থলভাগে উঠে আসে। এ সময় বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ২৯৫ কিলোমিটার, পরে ঝড়ো হওয়া আকারে ৩৫৪ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

এনএইচসি জানিয়েছে, ডোরিয়ান ঘণ্টায় নয় কিলোমিটার বেগে অগ্রসর হচ্ছে এবং আকারে বৃদ্ধি পেয়ে কেন্দ্র থেকে ৭৫ কিলোমিটার বিস্তৃত হয়ে প্রবল শক্তি নিয়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে।

বিবিসি জানিয়েছে, প্রলয়ঙ্করী এ হারিকেনের তাণ্ডবে বহু ঘরের ছাদ উড়ে গেছে। জলোচ্ছ্বাস আর প্রবল বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে অনেক জায়গা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবাকোর বাসিন্দাদের পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা গেছে, পুরো দ্বীপে দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া ধাতব খণ্ড ও ছিন্ন কাঠের ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। অনেক বাড়ির অর্ধেক পর্যন্ত পানিতে ডুবে গেছে এবং সেগুলোর ছাদের কিছু অংশ উড়ে গেছে।