Advertisements

রাঙ্গামাটির কাপ্তাইয়ে দেশের প্রথম সরকারি সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু হয়েছে। বুধবার  গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৭ দশমিক ৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতার কেন্দ্রটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পরপরই জাতীয় গ্রিডে ১৩২ কেভি লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়।

প্রকল্প পরিচালক ফারুক আহমেদ জানিয়েছেন, কাপ্তাইয়ে আরো কয়েকটি সৌরচালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরির চিন্তাভাবনা চলছে।

সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০২০ সালের মধ্যে দেশের বিদ্যুতের মোট উৎপাদনের ১০ ভাগ নবায়নযোগ্য শক্তির টার্গেট পূরণে সরকারিভাবে রাঙ্গামাটিতে ৭ দশমিক ৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন সোলার প্যানেল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। কাপ্তাই প্রকল্পের ভেতর কর্ণফুলী পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান বাঁধ সংলগ্ন ২৩ একর জায়গায় সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পটির কার্যক্রম শুরু হয় ২০১৭ সালের ৯ জুলাই। এ প্রকল্পের প্রতি কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ টাকা ৪৮ পয়সা। প্রায় দু’বছর কাজ শেষে  প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পরপরই জাতীয় গ্রিডের ১৩২ কেভি লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে।

উৎপাদিত বিদ্যুৎ স্থানীয় কয়েকটি এলাকার চাহিদা মিটিয়ে বাকি বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে ১৩২ কেভি লাইনে সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানান কাপ্তাই সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত এ প্রকৌশলী।

কাপ্তাই সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্রের সহকারী প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, রাঙ্গামাটি, কাপ্তাই ও লিচুভাঙা পর্যন্ত বিদ্যুৎ দিয়েও আরো ২/৩ মেগাওয়াট গ্রিডে দেয়া হচ্ছে।

চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জেডটিই করপোরেশন পাওয়ার প্ল্যানটি নির্মাণ করে। ২৪ হাজার ১২টি প্যানেল স্থাপনের মাধ্যমে দেশের প্রথম এ সোলার প্যানেলটি স্থাপন করা হয়েছে বলে জানান জেডটিই করপোরেশনের এ কর্মকর্তা।

By Abraham

Translate »