Advertisements

ছয় দিন ধরে সমুদ্রে ভাসমান ৮২জন অভিবাসীকে উদ্ধার করে আনা উদ্ধারকারী জাহাজ ওশান ভাইকিংকে লাম্পেদোসা দ্বীপে ভিড়তে দিল ইটালি এবং অভিবাসীদের বন্দরে নামবার অনুমতি দিল।

বলা হচ্ছে এটা করা হয়েছে কারণ এই অভিবাসীদেরকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্য দেশগুলোতে পাঠানো হবে।

অনেকে মনে করছেন যে, অভিবাসীদের প্রতি এই আচরণের পরিবর্তনের সাথে মঙ্গলবার দেশটিতে যে নতুন জোট করা হয়েছে তার সম্পর্ক আছে।

এর আগে, দাতব্য সংস্থাগুলো পরিচালিত অভিবাসীদের উদ্ধারকারী জাহাজগুলোকে নিয়ম করে বন্দরে আটকে দিতেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাত্তেও স্যালভিনি। ।

ইটালির পররাষ্ট্র মন্ত্রী দেশটির টেলিভিশনে বলেছেন, “একটা নিরাপদ বন্দর ঠিক করা হয়েছে কারণ ইউরোপীয় ইউনিয়ন আমাদের অনুরোধ রেখে বেশির ভাগ অভিবাসী নিতে রাজি হয়েছে”।

তবে তিনি এটাও যোগ করেন, এর অর্থ এই নয় যে আবারো উন্মুক্ত বন্দরের নীতিতে ফিরে যাচ্ছি।

“এটা পরিষ্কার যে আগের সরকারের সময় আমাদের লক্ষ্য ছিল যেসব অভিবাসী ইটালিতে আসছে তাদেরকে ইইউভূক্ত অন্যান্য দেশে পাঠিয়ে দেয়া”।

এদিকে ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শনিবার এক টুইটে বলেছেন একটা ইউরোপিয়ান চুক্তি হয়েছে ইটালি, ফ্রান্স, জার্মানি, পর্তুগাল এবং লুক্সেমবার্গে মধ্যে যার ফলে দরকার হলে তাদেরকে তীরে আসতে দেয়া হবে।

তিনি বলেন ” আমাদের এখন দরকার একটা বাস্তব সাময়িক ইউরোপিয়ান ব্যবস্থা”।

অর্থাৎ ইইউ একটা ব্যবস্থা নিচ্ছে যদিও সেটা প্রাথমিকভাবে সাময়িক।

জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ভবিষ্যতের ঐ চুক্তি অনুযায়ী তার দেশ ইটালি থেকে ২৫% উদ্ধার করা অভিবাসী নেবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের মন্ত্রীরা অক্টোবরে মাল্টাতে এক সম্মেলনে যোগ দেবেন। যেখানে তারা একটা বৃহৎ চুক্তিতে পৌছাতে পারবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

By Abraham

Translate »