আন্তর্জাতিক

এস-৪০০-এর দ্বিতীয় চালান পাওয়ার কথা নিশ্চিত করল তুরস্ক

Advertisements

রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০-এর দ্বিতীয় চালান পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এটি বলেছে, ২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যে এ ব্যবস্থা কার্যক্ষম হবে।

তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আজ (রোববার) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, রাজধানী আঙ্কারা থেকে ৩৫ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত একটি বিমান ঘাঁটিতে আজ এস-৪০০ হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। তবে এটি পরিচালনার জন্য তুর্কি সেনা বিশেষজ্ঞদের প্রশিক্ষণের কাজ এখনো চলছে। গতমাসের ২৭ তারিখ থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার দ্বিতীয় চালান হস্তান্তরের কাজ শুরু হয়েছিল।

আঙ্কারার নিকটবর্তী একটি বিমান ঘাঁটিতে এস-৪০০ হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়

আমেরিকার তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও গত জুলাই মাসের শেষদিকে রাশিয়া এস-৪০০-এর প্রথম চালান তুরস্কের কাছে হস্তান্তর করে। এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্রয়কে কেন্দ্র করে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আঙ্কারার সম্পর্কে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ওয়াশিংটন বলছে, রাশিয়ার কাছ থেকে এই ব্যবস্থা ক্রয় ন্যাটো জোটের নীতিমালার পরিপন্থি এবং আমেরিকায় নির্মিত এফ-৩৫ জঙ্গিবিমানের নিরাপত্তাকে বিপন্ন করবে এ ব্যবস্থা। কিন্তু আঙ্কারা আমেরিকার এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছে, নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য যেকোনো সমরাস্ত্র সংগ্রহ করার অধিকার তুরস্কের রয়েছে।

এদিকে এস-৪০০ সংগ্রহ করা সত্ত্বেও এটি মোতায়েন না করার জন্য তুরস্কের প্রতি মার্কিন সরকার যে আহ্বান জানিয়েছে তাও প্রত্যাখ্যান করেছে আঙ্কারা। তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু গতকাল (শনিবার) এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, বসিয়ে রাখার জন্য তার দেশ এই ব্যবস্থা রাশিয়ার কাছ থেকে সংগ্রহ করেনি।#