খেলার খবর

ডি ককের ঝড়ে সিরিজ ড্র করল দ.আফ্রিকা

Advertisements

অধিনায়ক হিসেবে প্রথম জয় পেলেন কুইন্টন ডি কক।

নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সঙ্গে অসাধারণ ফিল্ডিং। চনমনে দক্ষিণ আফ্রিকা তপ্ত গরমে আগে ফিল্ডিং করে ভারতকে অল্পরানে আটকে রাখে। সহজ লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য প্রয়োজন ছিল দায়িত্বশীল একটি ইনিংস। অধিনায়ক ডি কক দলের হয়ে কাজটা করেন। তার ব্যাটে ভর করে সহজেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে সফরকারীরা।

বেঙ্গালুরুতে রোববার ভারতকে নয় উইকেটে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আগে ব্যাটিং করে ভারত নয় উইকেটে ১৩৪ রান তোলে। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে ১৯ বল হাতে রেখে। ২২ গজে রীতিমত ঝড় তোলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক। ছয় চার ও পাঁচ ছক্কায় ৫২ বলে করেন ৭৯ রান। টি-টোয়েন্টিতে এটি ডি ককের সর্বোচ্চ রান। এর আগে ৫৯ রান ছিল বাংলাদেশের বিপক্ষে।

ব্যাটিংয়ে ভারতের শুরুটা ভালো হয়নি। রোহিত শর্মা নয় রানে ক্যাচ দেন হেনড্রিকসের বলে। দ্বিতীয় উইকেটে শেখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলি রানের চাকা সচল রাখেন। মন্থর উইকেটে ধীরস্থির হয়ে ব্যাটিং করছিলেন তারা। কিন্তু হঠাৎ পথ ভুলে দুজনই দ্রুত সাজঘরে ফেরেন।

চায়নাম্যান শামসির বল তুলে মারতে গিয়ে ২৫ বলে ৩৬ রানে সাজঘরে ফেরেন ধাওয়ান। রাবাদাকে মিড উইকেট দিয়ে উড়াতে গিয়ে সীমানায় ক্যাচ দেন ১৫ বলে নয় রান করা কোহলি। সীমানায় অসাধারণ ক্যাচ ধরেন ফিকোযাও।

স্পিনার ফরর্চুন নিজের তৃতীয় ওভারে জোড়া সাফল্য দেন দলকে। পান্ত প্রথমে ফিকোযাওয়ের হাতে ক্যাচ দেন। এরপর শ্রেয়াশ আইয়ার ওয়াইড বলে স্ট্যাম্পড হন। ক্রনাল পান্ডিয়া দলকে টানতে পারেননি। চার রানে হেনড্রিকসের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন।

৯৮ রানে ছয় উইকেট হারানোর পর ভারত ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। হার্দিক পান্ডিয়া টিকে থাকলেও দলের প্রয়োজন মেটাতে পারেননি। ১৮ বলে করেন মাত্র ১৪ রান। রবীন্দ্রর জাদেজা ১৭ বলে করেন ১৯ রান। বল হাতে রাবাদা ৩৯ রানে নেন তিন উইকেট। দুটি করে উইকেট নেন ফর্চুন ও হেনড্রিসক।

১৩৫ রানের লক্ষ্য তাড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার ১০ ওভারে ৭৬ রান তুলে ভারতের বোলিং আক্রমণ এলোমেলো করে দেন। ডানহাতি ব্যাটসম্যান হেনড্রিকস ছিলেন ধীরস্থির। আগ্রাসন দেখান ডি কক। তাতেই ভারত জয় পায় সহজে। হেনড্রিকস কোহলির হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে করেন ২৮ রান। জয়সূচক রান আসে তেম্বা বাভুমার ব্যাটে। ২৩ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ২৭ রান করেন বাভুমা।

ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছেন ডি কক।

বৃষ্টিতে ধর্মশালায় প্রথম টি-টোয়েন্টি ভেস্তে গিয়েছিল। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি জিতেছিল ভারত। বেঙ্গালুরুতে জয় তুলে সিরিজ ড্র করল সফরকারীরা। দুই দল তিনটি টেস্ট ও ওয়ানডে খেলবে। টেস্ট সিরিজ শুরু হবে ২ অক্টোবর।