খেলার খবর

গায়ানাকে হারিয়ে সিপিএল শিরোপা সাকিবদের

Advertisements

ব্যাট হাতে খুব বেশি করতে পারলেন না সাকিব আল হাসান। ভালো হলো না বোলিংও। তবে তাতে জয় পেতে কোনো সমস্যা হয়নি বারবাডোজ ট্রাইডেন্টসের। টুর্নামেন্ট জুড়ে দাপুটে ক্রিকেট খেলা গায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্সকে হারিয়ে সিপিএলের শিরোপা জিতেছে জেসন হোল্ডারের দল।

ফাইনালে ২৭ রানে জিতেছে বারবাডোজ। ১৭২ রানে লক্ষ্য তাড়ায় ৯ উইকেটে ১৪৪ রান করে গায়না। সিপিএলের ফাইনালে এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো হারলো তারা।

পাঁচে নেমে ১ চারে ১৫ বলে ১৫ রান করে রান আউট হয়ে যান সাকিব। বোলিংয়ে ২ ওভারে ১৮ রান দিয়ে থাকেন উইকেটশূন্য।

ত্রিনিদাদের ব্রায়ান লারা স্টেডিয়ামে শনিবার টস জিতে শুরুটা ভালোই করে বারবাডোজ। অ্যালেক্স হেলস ২৪ বলে ফিরেন ২৮ রান করে। আরেক ওপেনার জনসন চার্লস ২২ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় করেন ৩৯ রান।

পরের চার ব্যাটসম্যানের মধ্যে দুই অঙ্কে যেতে পারেন কেবল সাকিব। ভালো শুরুর পর দিশা হারানো বারবাডোজ লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে জোনাথন কার্টারের ব্যাটে। ২৭ বলে চারটি করে ছক্কা ও চারে ৫০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। অ্যাশলি নার্স ১৫ বলে করেন অপরাজিত ১৯ রান।

ব্য্যাটিং ব্যর্থতায় ফাইনালের গেরো এবারও কাটাতে পারল না গায়ানা। এবারের আসরে আগে যে দলকে তিনবার হারিয়েছে হেরে গেল তাদের বিপক্ষে। টুর্নামেন্টে শোয়েব মালিকদের এটাই প্রথম হার।

এক পাশে বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে দ্রুত রান তুলছিলেন ব্র্যান্ডন কিং। অন্য পাশে মিলেনি সঙ্গ। ৩৩ বলে ৪৩ রান করে কিং ফিরে গেলে ভাটা পড়ে রানের গতিতে।

মিডল অর্ডারে দলকে টানতে পারেননি নিকোলাস পুরান। ২৫ বলে ফিরেন ২৪ রান করে। শেষের দিকে ২ ছক্কায় ২৫ রানে পরাজয়ের ব্যবধান কিছুটা কমান কিমো পল।

২৪ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বারবাডোজের সেরা বোলার রেমন রিফার।

Leave a Reply