দেশ জুড়ে

কুমিল্লায় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

Advertisements

কুমিল্লায় মেহেদী হাসান (১০) নামে তৃতীয় শ্রেণির এক শিশু ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাত ১০টার দিকে বাসার পাশের ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে স্বজনরা।

নিহত মেহেদী হাসান কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার হালিমানগর এলাকার সাতরাচম্পকনগর গ্রামের প্রবাসী আলমগীর হোসেনের ছেলে এবং নর্থ সাউথ চাইল্ড একাডেমীর শিক্ষার্থী। ধারণা করা হচ্ছে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা।

নিহতের চাচা আব্দুল হান্নান জানান: মেহেদী হাসান পাশের বাড়ির বিউটি আক্তার নামে একজনের প্রাইভেট পড়তো। প্রতিদিনের ন্যায় শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রাইভেট পড়তে যায় সে। রাত সাড়ে আটটায় বাসায় না ফেরার কারণে স্বজনরা শিক্ষকের বাসায় খোঁজ করে জানতে পারে পড়া শেষে শিক্ষক বিউটি শিশুটিকে তার বাসার গেইটে দিয়ে গেছেন।

‘প্রায় আধা ঘন্টা খোঁজাখুঁজির পর বাড়ির পাশে ডোবায় গলা ও ঘাড়ে ৭ থেকে ৮টি কোপের ক্ষতচিহ্নসহ মেহেদীর রক্তাক্ত নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। সেখান থেকে স্বজনরা দ্রুত কুমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।’

তিনি আরো জানান: কিছুদিন পূর্বে তাদের বাসায় মোবাইল টাকা পয়সাসহ স্বর্ণালংকার চুরি হয়েছে। সেই ঘটনার সাথে হয়তোবা এই ঘটনার সূত্রপাত থাকতে পারে।

কুমিল্লা কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আনোয়ারুল হক জানান: আমরা বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নেয়ার চেষ্টা করছি। কিভাবে কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা খতিয়ে দেখছি। বর্তমানে শিশুটির মরদেহ কুমেক হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে। তদন্তসাপেক্ষে বিস্তারিত জানা যাবে।