Advertisements

একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে করা মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ১৪ দলের পক্ষ থেকে দেওয়া কারণ দর্শানোর চিঠির জবাব দিয়েছেন জোট শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। জবাবে সন্তুষ্ট ১৪ দল।

জোটের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম আজ সোমবার এই সন্তুষ্টির কথা জানান।

নাসিম বলেছেন, ‘আমরা আজকে তাঁর কাছ থেকে যে ব্যাখ্যাটা পেয়েছি, এই ব্যাখ্যায় আমরা সন্তুষ্ট হয়েছি।’

আজ বেলা ১১টায় নাসিমের ধানমন্ডির বাসায় ১৪ দলের বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠকের পর এসব কথা বলেন নাসিম।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সম্প্রতি বরিশালে ১৪ দলীয় জোটের শরিক দল ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সাহেবের একটি বক্তব্যকে কেন্দ্র করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছিল। তার বক্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়ে ১৪ দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা একটি চিঠি দিয়েছিলাম। তিনি গতকালই চিঠিতে বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন।

১৯ অক্টোবর বরিশালের অশ্বিনীকুমার টাউন হলে ওয়ার্কার্স পার্টির বরিশাল জেলা শাখার সম্মেলনে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানুষ ভোটকেন্দ্রে যায়নি। এর বড় সাক্ষী আমি নিজেই। আজ মানুষ তাদের ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত।’
মেননের এ বক্তব্য নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তুমুল আলোচনা হয়। ২৪ অক্টোবর ১৪-দলীয় জোট বৈঠক করে রাশেদ খান মেননকে তাঁর বক্তব্যের জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ওই বৈঠকে ওয়ার্কার্স পার্টির কাউকে ডাকা হয়নি। গতকাল রোববার রাত আটটার দিকে মেননের ব্যাখ্যার চিঠি ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিমের বাসায় পৌঁছে দেওয়া হয়।

আজ সেই চিঠি প্রসঙ্গে নাসিম বলেন, সাম্প্রতিককালে বরিশালে একটি বক্তব্যের মধ্য দিয়ে রাশেদ খান মেননকে নিয়ে জনমনে যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছিল, এ বিষয়টি নিয়ে আমরা তার কাছে যে ব্যাখ্যা চেয়েছিলাম সে ব্যাখ্যা পেয়েছি। আমরা ১৪ দল বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আলোচনার প্রেক্ষিতে তিনি বলেছেন, তিনি ১৪ দলের জাতীয় নির্বাচন সম্পর্কে মতামতের সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত। তিনি ১৪ দলের নির্বাচন সংক্রান্ত বিশ্লেষণের সঙ্গে সম্পূর্ণ ঐকমত্য পোষণ করেছেন।

নাসিম বলেন, ‘তিনি (মেনন) বলেছেন যে সাম্প্রতিক বক্তব্যের খণ্ডিত ভাবে প্রকাশ করার জন্য জনমনে যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে এই জন্য তাকে অনেকে ভুল বুঝেছেন। এরপরও তিনি বলেছেন, তার এই বক্তব্যের জন্য তিনি অত্যন্ত দুঃখিত, আন্তরিকভাবে দুঃখিত। ১৪ দলের কাছে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, ১৪ দলের নেতৃত্বে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। আমাদের এই ঐক্যটা অটুট রাখার জন্য তিনি বলেছেন।’

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ১৪ দল একটি আদর্শিক জোট। ১৪ দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দীর্ঘ বছর ধরে লড়াই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছে ‌। দেশে একটি গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে উন্নয়ন এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমরা বিশ্বাস করি ১৪ দল যেহেতু একটা আদর্শিক জোট। অসাম্প্রদায়িক মানবিক বাংলাদেশ নির্মাণের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আমি বলতে চাই, তার ব্যাখ্যার মধ্য দিয়ে এই বিতর্কের অবসান হতে যাচ্ছে। আমরা বিশ্বাস করি ১৪ দল রাশেদ খান মেনন সহ অন্যান্য শরিক দল নিয়েই অতীতে যেভাবে কাজ করেছি সেভাবেই কাজ করে যাব।

নাসিম বলেন, আমরা সামাজিক অপরাধগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করছি। সম্প্রতি নুসরাত হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচারের মধ্য দিয়ে তা প্রমাণিত হয়েছে। সব ক্ষেত্রে ১৪ দল শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে।

By Abraham

Translate »