Advertisements

দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে ভারতের প্রস্তাবে সায় দিয়েছে বাংলাদেশ। আগামী মাসের ভারত সফরে কলকাতায় হবে এই টেস্ট। এই প্রথমবারের মতো গোলাপী বলে টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ভারতও দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলবে প্রথমবার।

এই সফরের সূচি হওয়ার সময় কিংবা কয়েক দিন আগেও দিন-রাতের টেস্ট নিয়ে আলোচনাই ছিল না। কয়েক দিন আগে সৌরভ গাঙ্গুলী ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানের দায়িত্ব নেওয়ার পর তার ইচ্ছাতেই মূলত নেওয়া হয় এই উদ্যোগ। প্রস্তাব দেওয়া হয় বাংলাদেশকে। বিসিবি এই সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিয়েছিল ক্রিকেটার ও টিম-ম্যানেজমেন্টের ওপর। তাদের সঙ্গে আলোচনার পরই এলো এই সিদ্ধান্ত।

সিদ্ধান্তে বড় ভূমিকা ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টের হওয়ায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে জানান জাতীয় কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

“আমি মনে করি, আমাদের জন্য এটি দারুণ এক সুযোগ। আগে আমরা গোলাপী বলে টেস্ট খেলিনি, প্রথমবার খেলব ইডেন গার্ডেন্সে। অনেক বড় উপলক্ষ্য আমাদের জন্য। আশা করি, দুই দলের জন্যই এটি উপভোগ্য অভিজ্ঞতা হবে। আমরা খুবই রোমাঞ্চিত।”

গোলাপী বলে ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের নেই বললেই চলে। ৬ বছর আগে বিসিএলের ফাইনাল ম্যাচ হয়েছিল দিবা-রাত্রির। ঘরোয়া ক্রিকেটে বাংলাদেশ গোলাপী বলে খেলেছে সেই একটি ম্যাচই। তারপরও কেন রাজী হলো বাংলাদেশ, সেটি ব্যখ্যা করলেন কোচ।

“সম্ভবত বিশ্বের সেরা টেস্ট দলের সঙ্গে খেলব আমরা। চ্যালেঞ্জ তো কিছু অবশ্যই আছে। প্রস্তুতির খুব বেশি সময় নেই। তবে ভারতের জন্যও বাস্তবতা একই। ওরাও গোলাপী বলে খেলেনি। দুই দলের জন্যই নতুন হবে বলে হয়তো ব্যবধান অনেকটা কমে যাবে।”

কলকাতায় এই ম্যাচ শুরু হবে আগামী ২২ নভেম্বর।

By Abraham

Translate »