Advertisements

বলিউডের বাদশাহ শাহরুখ খান যে কেবল বড় পর্দার হিরো নন, তার প্রমাণ দিয়েছেন। বলিউডের শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চনের বাড়িতে দীপাবলির পার্টিতে। সেদিন এক ছাদের নিচে মিলিত হয়েছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় তারকারা। দীপাবলির পার্টি কি আর আতশবাজি, তারাবাতি, ঝাড়বাতি বা মরিচবাতি ছাড়া জমে? আর প্রদীপ তো আছেই। দুর্ঘটনা ঘটতেও সময় লাগেনি।

তখন দিবাগত রাত তিনটা। হঠাৎ আগুন ধরে যায় বচ্চন পরিবারের পুত্রবধূ ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের ম্যানেজার অর্চনা সদানন্দের লেহেঙ্গায়। পাশেই ছিলেন শাহরুখ। তিনি সত্যিকারের হিরোর মতোই পরনের জ্যাকেট খুলে আগুন থেকে বাঁচাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তবে ততক্ষণে অর্চনা সদানন্দের শরীরের প্রায় ১৫ শতাংশ পুড়ে গেছে।

আগুনের আঁচ ছাড়েনি শাহরুখ খানকেও। তাঁকেও পুড়িয়েছে। তবে তা গুরুতর কিছু নয়। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে ফিরেছেন তিনি। আর এই ঘটনায় বলিউড তারকা সালমান খান একটি ভিডিও পোস্ট দিয়েছেন ইনস্টাগ্রামে। তাতে দেখা যাচ্ছে, আগুনে পুড়ছে শাহরুখ খানের শার্ট। এই ভিডিওতে ভয়েস ওভার দিয়ে সালমান খান বলেছেন, ‘সত্যিকারের হিরো সে-ই, যে আগুনে ঝাঁপিয়ে পড়ে অন্যের জীবন বাঁচায়।’

ভিডিওটি এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে প্রায় ৩৬ লাখবার। আর পছন্দ করেছে প্রায় ১৩ লাখ মানুষ। ২০ হাজারের বেশি মানুষ শাহরুখ খান আর সালমান খান দুজনেরই প্রশংসা করেছেন। শাহরুখ খানের সাহসিকতার প্রশংসা করেছেন। আর সালমান খানের উদারতার। একজন লিখেছেন, ‘বলিউডে সত্যিকারের বন্ধুত্ব একেই বলে।’ সালমান খানকে বলেছেন, ‘শাহরুখ খান সত্যিকারের হিরো। আর আপনি সেই হিরোর সত্যিকারের বন্ধু।’

অনেক শাহরুখভক্ত আবার এই পোস্টের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছে সালমান খানকে।

অর্চনা সদানন্দ এখন মুম্বাইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি। পুড়ে গেছে তাঁর ডান পা ও হাত। সংক্রমণ এড়াতে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তবে এখন তিনি আশঙ্কামুক্ত। দ্রুত আরোগ্য লাভ করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন চিকিৎসকেরা।

স্থানীয় পুলিশ ইতিমধ্যে অর্চনা সদানন্দের বক্তব্য রেকর্ড করেছেন। সেখানে অর্চনা জানান, প্রদীপ থেকে তাঁর পোশাকে আগুন লেগেছে। সেই সময় পাশে তাঁর মেয়ে ছিলেন। এটি একেবারেই অনাকাঙ্ক্ষিত একটা দুর্ঘটনা। এই ঘটনায় কাউকে দায়ী করেননি তিনি।

By Abraham

Translate »