Advertisements

জুলাইতে জুভেন্টাসের হয়ে মাতিয়াস ডি লিটের যখন অভিষেক হল, তখন কী দুর্ভাগ্যকেই না সঙ্গী করেছিলেন তিনি। তার আত্মঘাতী গোলে টটেনহ্যামের কাছে হেরেছিল জুভেন্টাস। সেই ঘটনার প্রায় সাড়ে তিন মাস পর জুভেন্টাসের হয়ে প্রথম গোলের দেখা পেলেন নেদারল্যান্ডসের এই আলোচিত ফুটবলার। তার গোলে ভর করে তোরিনোকে ১-০ গোলে হারিয়ে তুরিন ডার্বি জিতে নিয়েছে মাউরিজিও সারির শিষ্যরা। পাশাপাশি ইতালিয়ান সিরি’আ লিগের চলতি মৌসুমে দলকে অপরাজিত রাখলেন ডাচ তারকা।

তোরিনের বিপক্ষে প্রথমার্ধে কোনো গোলের দেখা পায়নি জুভেন্টাস। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে গঞ্জালো হিগুয়েনকে নামান কোচ। আর্জেন্টাইন তারকা নামার পর জুভেন্টাসের আক্রমণের ধার বাড়ে। ম্যাচের ৭০ মিনিটে অচলবস্থার অবসান ঘটান ডি লিট। তাকে সহায়তা করেন হিগুয়েন। এ সময় কর্নার পায় জুভেন্টাস। কর্নার থেকে দূরের পোস্টের দিকে উড়ে আসা বল খুঁজে পায় হিগুয়েনকে। হিগুয়েন বল বাড়িয়ে দেন ডি বক্সের মধ্যে থাকা ডি লিটকে। ডি লিটের ডান পায়ে নেওয়া শট সবাইকে ফাঁকি দিয়ে জালে আশ্রয় নেয়। অবশ্য শেষ দিকে তোরিনো জুভেন্টাসের জালে বল জড়িয়েছিল। কিন্তু সেটি অফসাইডের কারণে বাতিল হয়। শেষ পর্যন্ত ডি লিটের গোলটিই ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেয়।

তোরিনোর বিপক্ষে সবশেষ ১১ বারের দেখায় এ নিয়ে ৯ বার জিতলো তুরিনের ওল্ড লেডিরা। ২ বার হয়েছে ড্র।

এই জয়ের ফলে ১১ ম্যাচ থেকে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে জুভেন্টাস। পাশাপাশি কোচ হিসেবে সারি দায়িত্ব নেওয়ার পর এখনো জুভেন্টাস অপরাজিত আছে।

By Abraham

Translate »