আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৩ আহত ২৭

Advertisements

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলীয় শহর মানদালায়ের থাবেইক্কিন এলাকায় মঙ্গলবার এক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই সন্ন্যাসীসহ ১৩ জন নিহত এবং ২৭ জন আহত হয়েছেন। খবর মিয়ানমার বিষয়ক গণমাধ্যম দি ইরাওয়াদির।

দেশটির মন রাজ্যের মাউলামিন শহর থেকে সাগাইং রিজিওনগামী দুই কোচ মধ্যে সংঘর্ষে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

এই দুই বাসসহ তিনটি বাসে মাউলামিনের হেতাদারা ধর্ম স্কুল থেকে প্রায় ১২০ জনকে সাগাইং রিজিওনের বানমাউক এলাকার বিখ্যাত পাহাড় চূড়া জালন তাউং প্যাগোডার কাছে অবস্থিত একটি আশ্রমে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

উদ্ধারকারী সংগঠনগুলোর মতে, দ্বিতীয় কোচটি থাবেইক্কিনের কিয়াউক গি ভিলেজের কাছাকাছি পৌঁছালে কর্দমাক্ত রাস্তাটিতে পিছলে যায়। তখন তৃতীয় কোচটি সামনের কোচটির সঙ্গে সংঘর্ষ এড়াতে একটি গাছে ধাক্কা দেয়। তবে এই যানবাহনের কেউ আহত হয়নি।

মিয়ানমার রেসকিউ ফেডারেশনের মানদালায় শাখার প্রেসিডেন্ট ইউ হ্লাইং মিন ওও গণমাধ্যমটিকে জানান, নিহত ১৩ এবং আহত ২৭ জন ছিলেন দ্বিতীয় যানবাহনটিতে।

তিনি জানান, আহতদের বেশির ভাগকে থাবেইক্কিন হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। তবে চারজন আহতকে মানদালায় হাসপাতালে নেয়া হয়। নিহতদের মরদেহ মন রাজ্যে ফেরত পাঠানো হবে।

দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলে প্রথম পৌঁছানো লাতপানহ্লা রেসকিউ টিমের প্রেসিডেন্ট কো চিত কাউং গণমাধ্যমটিকে বলেন, রাস্তার ওপর দিয়ে বন্যার পানি বয়ে যাওয়ায় এটি কর্দমাক্ত ছিল বলেই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

গণমাধ্যমটি জানায়, এই দুই বাস উদ্ধার করতে চার ঘণ্টার বেশি সময় লেগে যায়। থাবেইক্কিন, মানদালায়ের সিঙ্গু ও সাগাইংয়ের শিউবো শহরের বেশ কয়েকটি উদ্ধারকারী দল এই উদ্ধারকাজে সহযোগিতা করে।