Advertisements

দক্ষিণ কোরিয়া বলেছে, ইয়েমেনে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন লোহিত সাগর থেকে তাদের যে তিনটি জাহাজ আটক করেছিল সব ক্রুসহ সেগুলোকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গত রোববার ইয়েমেনের পশ্চিম উপকূলে উকবান দ্বীপের কাছ থেকে ১৬ ক্রুসহ ওই তিন জাহাজ আটক করেছিল আনসারুল্লাহ যোদ্ধারা।

দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল (বুধবার) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, “ইয়েমেনে আটক জাহাজগুলোর পাশাপাশি এর সব ক্রুকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।এতে বলা হয়, আটক জাহাজগুলোর মধ্যে ছিল দক্ষিণ কোরিয়ার একটি টাগবোট ও একটি ড্রিলিং রিগ এবং সৌদি আরবের পতাকাবাহী একটি টাগবোট। ১৬ ক্রু’র মধ্যে মাত্র দু’জন দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিক ছিল বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

এর আগে আনসারুল্লাহ আন্দোলন জাহাজগুলো আটক করার খবর দিলেও সেগুলো মুক্তি দেয়ার যে খবর দক্ষিণ কোরিয়া দিয়েছে সে সম্পর্কে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি সানা।

আনসারুল্লাহ আন্দোলন মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, জাহাজগুলো দক্ষিণ কোরিয়ার নাকি আগ্রাসী শক্তিগুলোর তা পরীক্ষা করার জন্য ইয়েমেনের কোস্ট গার্ড সেগুলোকে আটক করেছে। বিবৃতিতে বলা হয়, জাহাজগুলো দক্ষিণ কোরিয়ার হয়ে থাকলে স্বাভাবিক আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর সেগুলোকে ছেড়ে দেয়া হবে। দৃশ্যত তিনটি জাহাজের একটিতে সৌদি আরবের পতাকা থাকায় সেগুলোকে আটক করে ইয়েমেনের কোস্ট গার্ড।

সৌদি আরব ২০১৫ সালের মার্চ মাস থেকে দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনের ওপর ভয়াবহ আগ্রাসন চালিয়ে আসছে।আনসারুল্লাহ আন্দোলনকে দমন ও পলাতক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদিকে ইয়েমেনের ক্ষমতায় পুনর্বহাল করার লক্ষ্যে এখনো আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে সৌদি আরব। কিন্তু রিয়াদ হাজার হাজার মানুষ হত্যা করেও তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি।

By Abraham

Translate »