Advertisements

হলি আর্টিজান জঙ্গি হামলা মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এ রায় সরকারের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়াবে। সেইসাথে জঙ্গিবাদী শক্তি ও পৃষ্ঠপোষকদের জন্য এক অশনি সংকেত। আর দেশের মানুষের ভবিষ্যৎ নিরাপদ ও স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা কায়েমে এ রায় ভূমিকা রাখবে।

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে যশোর ঈদগাহ ময়দানে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ ও দুর্নীতিবাজদের স্থান আওয়ামী লীগে হবে না। সেইসাথে দলের ভিতর থাকা অপকর্মকারীদেরও ক্ষমা করা হবে না। সম্মেলনের মাধ্যমে কর্মীদের পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরো বলেন, দলে মৌসুমি পাখিদের গুরুত্ব দিলে চলবে না। বিপদের সময় তাদের ৫ হাজার পাওয়ারের বাতি  জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না।

এদিকে সমাবেশে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, আইনের পথে খালেদার মুক্তির পথ খুঁজতে হব। মুক্তির দাবিতে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করলে কঠোরভাবে দমন করা হবে।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রহমান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, সদস্য এসএম কামাল হোসেন, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যসহ যশোরের ৬ আসনর সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। এর আগে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রেসিডিয়াম সদস্য পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য।

সমাবেশ শেষে পুনরায় শহিদুল ইসলাম মিলনকে সভাপতি ও শাহীন চাকলাদারকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

By Abraham

Translate »