Advertisements

আইপিএলে বাংলাদেশের সবচেয়ে পরিচিত নাম সাকিব আল হাসান। কিন্তু আইসিসির নিষেধাজ্ঞা পাওয়ায় ২০২০ সালের আইপিএলে খেলতে পারবেন না এই অলরাউন্ডার। বাংলাদেশের অন্য কোনো ক্রিকেটারকে আইপিএলে দেখা যাবে কি না, সেটা জানা যাবে নিলাম হওয়ার পরই। তবে আপাতত আইপিএল খেলতে আগ্রহী বাংলাদেশি ক্রিকেটার আছেন ৬ জন।

এবারের নিলামে উঠতে আগ্রহ প্রকাশ করা ক্রিকেটারদের তালিকা সোমবার প্রকাশ করেছে আইপিএল কর্তৃপক্ষ। আগামী ১৯ ডিসেম্বর হতে যাওয়া নিলামে নাম তুলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ৯৭১ জন ক্রিকেটার। এর মধ্যে ভারতীয় ৭১৩ জন। ২৫৮ জন বিদেশি।

এই তালিকা থেকে নিজেদের পছন্দের ক্রিকেটারদের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো দেবে আইপিএল কর্তৃপক্ষকে। যেটির সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে ৯ ডিসেম্বর বিকেল পর্যন্ত। সেই সংক্ষিপ্ত তালিকা থেকেই চূড়ান্ত হবে নিলামের তালিকা। ফলে আগ্রহ প্রকাশ করা সবার নাম যে নিলামে উঠবে, সেটার নিশ্চয়তা নেই।

নিলামে উঠতে আগ্রহী সব ক্রিকেটারের নাম অবশ্য প্রকাশ করেনি আইপিএল কর্তৃপক্ষ। বিদেশিদের মধ্যে বাংলাদেশের ৬ জনের পাশাপাশি আফগানিস্তানের ১৯ জন, অস্ট্রেলিয়ার ৫৫ জন, ইংল্যান্ডের ২২, নিউজিল্যান্ডের ২৪ জন, দক্ষিণ আফ্রিকার ৫ জন, শ্রীলঙ্কার ৩৯ জন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩৪ জন, জিম্বাবুয়ের ৩ জন, নেদারল্যান্ডস ও যুক্তরাষ্ট্রের ১ জন করে ক্রিকেটার নিলামের জন্য নাম নিবন্ধন করেছেন।

বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ক্যাটাগরিতে আছেন সাতজন- অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ক্রিস লিন, প্যাট কামিন্স, জশ হ্যাজেলউড, মিচেল মার্স, দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন ও শ্রীলঙ্কার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। তাদের সবার ভিত্তিমূল্য ২ কোটি রূপি।

অস্ট্রেলিয়ান পেসার মিচেল স্টার্ক এবারও আইপিএলে খেলবেন না। নেই ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক জো রুটও।

নিলাম থেকে আট ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে পারবে সর্বোচ্চ ৭৩ জন ক্রিকেটারকে। তাদের মধ্যে বিদেশি সর্বোচ্চ ২৯ জন।

শুরু থেকে এতদিন বেঙ্গালুরুতে হয়ে এসেছে আইপিএলের নিলাম। প্রথা ভেঙে ২০২০ সালের আইপিএলের নিলাম হবে কলকাতায়।

এবারের নিলাম অবশ্য অতীতের মতো বড় মাপের হবে না। আগামী বছরের আইপিএলের পর সব ফ্র্যাঞ্চাইজি নতুনভাবে দল গঠন করবে। ছেড়ে দেওয়া হবে সব ক্রিকেটারকে। ২০২১ সালের আইপিএলের আগে ফের হবে বড় নিলাম।

By Abraham

Translate »