Advertisements

আগামী ১ জানুয়ারি (বুধবার) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে শুরু হতে যাচ্ছে ২৫তম ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০২০’। এবারের মেলাকে দৃষ্টিনন্দন করতে প্রধান গেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ছোঁয়া থাকবে। এবারই প্রথম মেলার প্রধান গেট ও বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন নির্মাণ করবে গণপূর্ত অধিদপ্তর।

শুধু তাই নয়, মেলার বিভিন্ন প্রান্তে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিসহ দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ফুটিয়ে তোলা হবে। এক কথায় ২৫তম বাণিজ্যমেলা হবে বঙ্গবন্ধুময়।

তবে বাণিজ্য মেলায় নান্দনিকতা বাড়লেও কমেছে স্টল সংখ্যা। এবছর মেলার জন্য দরপত্র আহ্বান করা হলে নির্দিষ্ট সময়ে আশানুরূপ সাড়া না পাওয়ায় ফের দরপত্র আহ্বান করা হয়। তবে দেশীয় ব্যবসায়ীদের তুলনায় আগ্রহ বেড়েছে বিদেশি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) সূত্রে এতথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর মহাপরিচালক অভিজিৎ চৌধুরী জানান, পূর্বাচলের স্থায়ী জায়গা প্রস্তুত না হওয়ায় এবারও আগারগাঁওয়ে ২৫তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী বছরের প্রথম দিন অর্থাৎ ১ জানুয়ারি বিকেল ৩টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। মেলাকে আরও দৃষ্টিনন্দন করতে এর প্রধান গেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ছোঁয়া থাকবে। এবারই প্রথম মেলার প্রধান গেট ও বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন নির্মাণ করবে গণপূর্ত অধিদপ্তর। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন আয়োজনসহ এবারও সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের বিভিন্ন থিম থাকবে মেলাজুড়ে।

তিনি আরো বলেন, এবার বাণিজ্যমেলায় স্টল সংখ্যা কমেছে। এখন পর্যন্ত মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৪৪১টি। গতবছর স্টল সংখ্যা ছিল ৫৫০টি। সবচেয়ে বেশি কমেছে সাধারণ স্টল। গতবছর আমাদের ২৫০টি সাধারণ স্টল থাকলেও এবছর সেখানে ৫০টি স্টল করা হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত ২৩৩টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বিদেশি ২৬টি প্যাভিলিয়নের বিপরীতে আবেদন পড়ে ৫৫টি। এখনও যাচাই-বাছাই চলছে। এপর্যন্ত চারটি ব্যাংক মেলায় বুথ ও ব্যাংকিং কার্যক্রম চালুর আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

By Abraham

Translate »