Advertisements

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা চরম আকার ধারণ করেছে। তাকে কারামুক্ত করে উন্নত চিকিৎসা না করালে জীবনহানির ঝুঁকি রয়েছে। সরকার খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে রীতিমত রসিকতা করছে। বললেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ রোববার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিতে তার ভাই বোন ও স্বজনরা সাক্ষাৎ করার আবেদন করলেও কারা কর্তৃপক্ষ অনুমতি দিচ্ছেন না। গত ২৫ দিন হলো দেশনেত্রীর সঙ্গে তার স্বজনদের সাক্ষাৎ বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। গত ১৩ নভেম্বরের পর খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। ফলে দেশনেত্রীকে নিয়ে আমরা চরম শঙ্কায় আছি।

তিনি বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিতভাবে সাক্ষাতের জন্য বারবার আবেদন করার পরেও কারা কর্তৃপক্ষ তাতে কোনও কর্ণপাত করেনি। কারাবিধি অনুযায়ী সাত দিন পরপর বন্দিদের সঙ্গে সাক্ষাতের নিয়ম রয়েছে। রিজভী আরও বলেন, দেশের প্রতিটি মানুষ জানে, সরকারের কারসাজিতেই দেশনেত্রীর জামিন নিয়ে টালবাহানা করা হচ্ছে। দেশনেত্রীকে বাঁচাতে হলে এখনই জামিন ও সুচিকিৎসা দরকার। তাই আমরা জনগণের পক্ষ থেকে সরকারকে বলতে চাই দেশনেত্রীর জামিন নিয়ে আর কোনও টালবাহানা করবেন না। তার জামিনে কোনও বাধা দেবেন না।

By Abraham

Translate »