Advertisements

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে আরও পিছিয়ে পড়ল ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যানচেস্টার ডার্বিতে ঘরের মাঠে নগরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে হেরে গেছে পেপ গার্দিওলার দল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জিতেছে ২-১ গোলে।

ইউনাইটেডের হয়ে একটি করে গোল করেন মার্কাস রাশফোর্ড ও অ্যান্থনি মার্শিয়াল। সিটির একমাত্র গোলটি করেন নিকোলাস ওটামেন্ডি।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে শনিবার ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ আর পাল্টা-আক্রমণের পসরা সাজিয়ে বসেছিল দুই দল।

প্রথম ১৫ মিনিটেই অন্তত দুই গোলে এগিয়ে যেতে পারত ইউনাইটেড। তবে দুবারই সিটিকে বাঁচিয়েছেন গোলরক্ষক এডারসন। শুরুতে জেমসের শট সেভ করার পর মার্শিয়ালকেও ফিরিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক।

২৩ মিনিটে আর সিটিকে বাঁচাতে পারেননি এডারসন। পেনাল্টি থেকে ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন রাশফোর্ড। বক্সের ভেতর রাশফোর্ডকে ফাউল করেছিলেন বার্নার্দো সিলভা। ভিএআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।

২৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলেন রাশফোর্ড। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল পোস্টের বাইরে দিয়ে মারেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড। দুই মিনিট পর তার আরেকটি শট লাগে ক্রসবারে।

২৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্শিয়াল। বক্সের বাইরে জেমসকে পাস দিয়ে তিনি ভেতরে ঢুকে যান। এরপর বাঁ পায়ের দারুণ শটে নিচের কর্নার দিয়ে বল জালে পাঠান ফরাসি ফরোয়ার্ড।

বিরতির আগে বক্সের সামনে দুটি ফ্রি-কিক পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি সিটি। কেভিন ডি ব্রুইন বল মারেন ক্রসবারের ওপর দিয়ে। ডেভিড সিলভার দুর্বল শট সহজেই ধরে ফেলেন গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া।

যোগ করা সময়ে বক্সের ভেতর ফ্রেডের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির আবেদন করেছিলেন সিটির খেলোয়াড়রা। তবে রেফারি কর্নারের বাঁশি বাজান। ভিএআরেও পাল্টেনি রেফারির সেই সিদ্ধান্ত। ফলে দুই গোলের লিড নিয়েই বিরতিতে যায় অতিথিরা।

বিরতির পর ৬৩ মিনিটে ইউনাইটেডকে বাঁচান ডি গিয়া। বক্সের সামনে থেকে রদ্রিগোর জোরালো শট লাফিয়ে উঠে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক।

৮৫ মিনিটে সিটির হয়ে ব্যবধান কমান দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে নামা ওটামেন্ডি। রিয়াদ মাহরেজের কর্নার থেকে হেডে বল জালে পাঠান আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার।

তাতে নাটকীয়তার আভাস মিলেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হওয়ায় তিন পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে অতিথিরা।

এই হারে লিভারপুলের থেকে ১৪ পয়েন্ট পিছিয়ে পড়ল ম্যানচেস্টার সিটি। শনিবার আরেক ম্যাচে বোর্নমাউথকে ৩-০ গোলে হারানো লিভারপুল ১৬ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে সিটি। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে উঠেছে ইউনাইটেড।

By Abraham

Translate »