Advertisements

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) জিএস গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে নির্বাচিত ২৩ জন নেতা ডাকসু ভিপির পদত্যাগের যে দাবি জানিয়েছিলেন তা প্রত্যাখ্যান করেছেন ভিপি নুরুল হক নুর। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হলে আমি পদত্যাগ করবো, কিন্তু ছাত্রলীগের কথায় ডাকসুর ভিপি পদত্যাগ করবে না কিংবা ছাত্রলীগের কথায় কর্ণপাত করবে না।’

এর আগে, নৈতিক স্খলনের অভিযোগ তুলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরের পদত্যাগ দাবি করেন জিএস গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে নির্বাচিত ২৩ জন। সেখঝানে ডাকসু এজিএস সাদ্দাম হোসেন লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ১৩ কোটি টাকার টেন্ডারবাজির অভিযোগ আনেন।
তাদের সংবাদ সম্মেলন শেষে ডাকসু ভবনের সামনে নুরুল হক নুর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।তিনি বলেন, ‘কেউ যদি প্রমাণ করতে পারে যে, ডাকসুর ভিপি বিন্দুমাত্র অনৈতিক লেনদেন করেছে, অবৈধ লেনদেন করেছে, দুর্নীতির সাথে জড়িত হয়েছে, তাহলে প্রমাণটা গণমাধ্যমে উপস্থাপন করলে তাদের প্রশ্ন তোলার আগেই ডাকসুর ভিপি পদত্যাগ করবে।’

ডাকসু ভিপি আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যেভাবে সারাদেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করার জন্য ভিন্নমতের উপর দমন পীড়ন চালিয়ে দেশকে একটি নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিয়েছে এবং দেশে একটা স্বৈরতন্ত্র কায়েম করতে যাচ্ছে। আজকের ছাত্রলীগ একইভাবে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিন্নমতের শিক্ষার্থীদের উপর দমন-পীড়ন হামলা-মামলা চালিয়ে তারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একটা দখলদারি পরিবেশ কায়েম করতে চায়।’

”যেখানে ছাত্রলীগের বাইরে কেউ যেন না থাকতে পারে। সেজন্যই তারা এখন ডাকসুর ভিপির পদটি নিয়ে খুব অস্বস্তিতে রয়েছে। কারণ সারা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ভিপি ছাড়া আর কোন সংগঠন বা দল কথা বলে না।”

By Abraham

Translate »