বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

সরকারি দপ্তরে বিদেশী প্রযুক্তি চায় না চীন

Advertisements

নিজেদের সরকারি দপ্তর ও প্রতিষ্ঠান থেকে বিদেশী পিসি এবং সফটওয়্যার সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে চীন সরকার। এ বছরের শুরুতেই এ বিষয়ে এক নির্দেশনা ইস্যু করেন বেইজিংয়ের কর্তাব্যক্তিরা।

ওই নির্দেশনায় আগামী তিন বছরের মধ্যে বিদেশী হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার সরিয়ে তার বদলে চীনের হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ব্যবহারের কথা বলা হয়েছে। নীতিটিকে ‘৩-৫-২’ নামেও ডাকা হচ্ছে। কারণ ২০২০ সালে সরকারি দপ্তর থেকে ৩০ শতাংশ হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার, ২০২১ সালে ৫০ শতাংশ এবং ২০২২ সালে অবশিষ্ট ২০ শতাংশ সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে দেশটি। — খবর প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেটের।

চীনের এ নির্দেশনার বিষয়টি জানিয়ে রোববার প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে ফিনানশিয়াল টাইমস। নির্দেশনা প্রসঙ্গে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্তব্য জানতে চাওয়া হয়েছিল। তবে, এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি মন্ত্রণালয়।

প্রায় বছরখানেকেরও বেশি সময় ধরে চলছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য যুদ্ধ। চলতি বছরের নভেম্বরে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ও জেডটিই’র কাছ থেকে যন্ত্রাংশ ও সেবা কেনার জন্য বার্ষিক ৮৫০ কোটি ডলারের ইউনিভার্সাল সার্ভিস ফান্ড খরচের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে মার্কিন ফেডারেল কমিউনিকেশনস কমিশন। যুক্তরাষ্ট্র বলছে, মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

এর আগে, মে মাসে জাতীয় নিরাপত্তার কথা বলে প্রতিষ্ঠানটিকে কালো তালিকাভুক্ত করে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার পর থেকেই ৫জি নেটওয়ার্ক থেকে হুয়াওয়েকে বাদ দিতে অন্যান্য দেশকে ‘পরামর্শ’ দিয়ে আসছে মার্কিন প্রশাসন।

তবে, হুয়াওয়ে ও জেডটিই প্রতিষ্ঠান দুটি নজরদারি বা মার্কিন নিরাপত্তার হুমকির অভিযোগটি বরাবরই অস্বীকার করেছে।