খাদ্য ও পুষ্টি

পিরিয়ডের ব্যথায় ঘরোয়া চিকিৎসা

Advertisements

পিরিয়ড হলে কিংবা পিরিয়ডের শুরুতে নারীরা বেশ কিছু শারীরিক সমস্যার মুখোমুখি হন। বিশেষ করে তলপেটে, কোমরে এবং পায়ে ব্যথা হয়। কারো কারো আবার মাথা ব্যথা করে, বমিভাব হয়। এসব সমস্যায় করতে কেউ কেউ ওষুধ সেবন করেন। কিন্তু ওষুধে স্বস্তি পাওয়া গেলেও অনেক সময় ক্ষতিও হয়।

তবে ঘরোয়া উপায়ে পিরিয়ডের ব্যথা দূর করা যায়। যেমন, হালকা গরম পানিতে ২০-২৫ মিনিট গোসল করলে ব্যথা কমে।

শরীরের যেসব জায়গায় ব্যথা হয়, সেখানে ম্যাসাজ করলে ব্যথা থেকে মুক্তি মেলে।

গরম পানির সেক দিলেও ব্যথা কমে। ব্যাগে সহনীয় মাত্রায় গরম পানি নিয়ে পেটে, কোমরে এবং পায়ে ধরে রাখলে ব্যথা দূর হয়।

আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে, আদা কিংবা পুদিনা পাতা দিয়ে দিনে দুবেলা চা খেলে উপকার মেলে।

অ্যালোভেরার সঙ্গে মধু মিশিয়ে জুস বানিয়ে খেলেও ব্যথা কমে এবং শরীর সুস্থ থাকে।

ধনে বীজে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান রয়েছে, যা পিরিয়ডের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। তাই ধনে বীজ গরম পানিতে সেদ্ধ করে পানীয় হিসেবে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি হলে পিরিয়ডের সময় ব্যথা হয়। ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার যেমন কলা এবং বীজ জাতীয় খাবার খেলে এই সমস্যা মোকাবেলা করা সম্ভব।

পিরিয়ডের সময় চিনি, লবণ ও ক্যাফেইনযুক্ত খাবার কম খাওয়া ভালো। অ্যালকোহল যুক্ত খাবার একেবারে পরিহার করতে হবে।