Advertisements

রোববার থেকে সারাদেশে শীতের দাপট কমে আসলেও চলতি মাসের শেষের দিকে আবারো শীতের তীব্রতা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

দেশের উত্তরা-দক্ষিণাঞ্চলসহ সারাদেশে বুধবার রাত থেকে শীতের দাপট চলছে। দক্ষিণাঞ্চলের জেলা ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, বরিশাল, খুলনা ও যশোর এবং উত্তরের জেলা চুয়াডাঙ্গা, ও রাজশাহীতে তীব্র শীতের প্রভাব চলছে। ওই অঞ্চলে গত তিনদিন মৌসুমের প্রথম মৃদু শৈত্য প্রবাহ থাকলেও শনিবার পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কাওসার পারভিন জানান, রোববার থেকে সূর্যের দেখা মিলতে পারে, তখন দিন এবং রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে এবং শীতের তীব্রতা কিছুটা কমে যাবে। তবে ঢাকার পূর্বদিক এবং ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, চট্টগ্রাম, বরিশাল, রাজশাহী এবং রংপুরে শীতের তীব্রতা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি জানান, চলতি মাসের ২৫/২৬ তারিখের দিকে সারাদেশে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে এবং হালকা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তখন আবারো দেশের তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে।

তিনি জানান, শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ফরিদপুরে ১০ দশমিক ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস, যশোরে ১০ দশমিক ২ ডিগ্রী সেলসিয়াস, বরিশাল, চুয়াডাঙ্গায় ও মাদারীপুরে ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস, ইশ্বরদীতে ১০ দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস, তাড়াশে ১০ দশমিক ৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস ও কুমিল্লায় ১০ দশমিক ৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

এ ছাড়া ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক ২ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৭ দশমিক ৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

মধ্য রাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ কথা জানানো হয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টায় আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, রাত এবং দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পেতে পারে।

ঢাকায় শনিবার সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৫টা ১৬ মিনিটে। রোববার ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৬টা ৩৭ মিনিটে।

আবহাওয়ার সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত।

By Abraham

Translate »