Advertisements

আঁতোয়ান গ্রিজমান যোগ দেওয়ার পর আক্রমণে নতুন ত্রয়ী পেয়েছে বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজকে নিয়ে গড়া এই ত্রয়ীকে ডাকা হচ্ছে এমএসজি বলে। গত ১৮ ডিসেম্বরের এল ক্লাসিকোতে রিয়াল মাদ্রিদকে হারানোর জন্য এই ত্রিফলার ওপর অনেক আশা রেখেছিল বার্সেলোনা। কিন্তু গোল শূন্য সে ম্যাচে আঁচড় কাটতে পারেননি কেউ। ক্লাসিকোর পরেই আজ আলাভেসকে ন্যু ক্যাম্পে আতিথ্য দিয়েছে কাতালানরা। গোল পেয়েছেন ত্রয়ীর সবাই। সে সুবাদে প্রতিপক্ষকে ৪-১ ব্যবধানে উড়িয়ে দিতেও কোনো সমস্যা হয়নি বার্সেলোনার।

গোল উৎসবের সূচনা গ্রিজমানকে দিয়ে। ১৪ মিনিটে সুয়ারেজের পাস থেকে দলকে প্রথম এগিয়ে দিয়েছেন ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড। এর পর বেশ কিছু সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি স্বাগতিক দল। প্রথমার্ধ শেষের আগমুহূর্তে আর্তুরো ভিদাল গোলের ব্যবধান বাড়িয়েছেন। এবারও সুয়ারেজের পাস থেকেই এসেছে গোলের সুযোগ।

৫১ মিনিটে ব্যবধান বাড়িয়ে দিয়েছিলেন গ্রিজমান। কিন্তু মেসির পাস থেকে করা সে গোল অফসাইডে বাতিল হয়। ৫৬ মিনিটে ম্যাচ জমিয়ে তোলার আশা জাগিয়েছিলেন পেরে পনস। বার্সা রক্ষণের অসতর্কতাকে কাজে লাগিয়ে ব্যবধান কমিয়ে (২-১) আনেন এই মিডফিল্ডার। কিন্তু ১৩ মিনিট পরেই বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক ভলিতে আলাভেসের স্বপ্ন শেষ করে দিয়েছেন মেসি। তবু একটু অতৃপ্তি ছিল, সুয়ারেজ যে গোল পাচ্ছিলেন না কোনোভাবেই।

৭৫ মিনিটে ভিদালের এক ক্রসে হেড করার জন্য লাফিয়ে উঠেছিলেন সুয়ারেজ। সে বল লাইন ক্রস করার আগে ডিফেন্ডারের হাতে লাগে। প্রথমে কর্নার দিলেও পরে ভিএআরের সুবিধা নিয়ে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নেন রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল পেতে কোনো অসুবিধা হয়নি উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের।

By Abraham

Translate »