Advertisements

ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বা ‘সিএএ’ ইস্যুতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মাদের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে নয়া দিল্লি। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সেদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্সকে ডেনে এনে বলেছে, তাদের প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য অগ্রহণযোগ্য এবং ভারতের অব্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ।

মাহাথির মোহাম্মাদ ভুল তথ্যের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব আইন সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন বলে ভারত দাবি করেছে।

মাহাথির মোহাম্মাদ গতকাল (শুক্রবার) কুয়ালালামপুর সামিটের মিডিয়া সেন্টার পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেছেন, এটা দুঃখজনক ভারত নিজেকে সেক্যুলার রাষ্ট্র বলে দাবি করে কিন্তু এখন তারা কিছু মুসলমানকে তাদের নাগরিকত্ব থেকে বঞ্চিত করার জন্য কাজ করছে।

সম্প্রতি ভারত সরকার নয়া সংশোধনী আইন প্রণয়ন করেছে। এই আইন অনযায়ী পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টান ধর্মের অনুসারীরা নতুন করে নাগরিক হতে পারবেন। তবে মুসলমানদের জন্য এই সুযোগ রাখা হয় নি।

ভারতের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, এই আইন সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। তার মতে, এটি হিটলারের আইনের চেয়েও খারাপ এবং মুসলমানদের জাতীয় পরিচিতি কেড়ে নিতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। আইনটি পাসের পর চলমান বিক্ষোভ ও সহিংসতায় এ পর্যন্ত অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছে বলে খবর এসেছে।

By Abraham

Translate »