Advertisements

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) মধ্যে মহাপরিচালক পর্যায়ে পাঁচ দিনব্যাপী সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলন শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভারতের নয়াদিল্লিতে বিএসএফের সদর দপ্তরে এ সম্মেলন শুরু হয়। বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল সম্মেলনে অংশ নিয়েছে।

বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে অন্যদের মধ্যে রয়েছেন- বিজিবি সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন স্টাফ অফিসার, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তারা। বিএসএফ মহাপরিচালক শ্রী ভিভেক জোহরীর নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধি দল অংশ নিয়েছে।

এবারের সম্মেলনে সীমান্তে নিরস্ত্র বাংলাদেশি নাগরিকদের ওপর গুলি চালানো ও আহত অথবা হত্যার প্রতিবাদ জানানো এবং এ ধরনের কর্মকাণ্ড বন্ধে করণীয় সম্পর্কে আলোচনা হবে। ভারত থেকে বাংলাদেশে ইয়াবা, ফেনসিডিল, মদ, গাঁজা, হেরোইনসহ সব ধরনের মাদকের চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ও অস্ত্র গোলাবারুদ রোধের বিষয়টিও থাকবে আলোচনার টেবিলে। এ ছাড়া ভারতের অভ্যন্তরে ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্যের কারখানা বা গুদাম ও মাদক পাচারকারীদের সম্পর্কিত তথ্য বিনিময় করা হবে।

সীমান্ত ব্যবস্থাপনা এবং সীমান্ত সম্পর্কিত সমস্যা দ্রুত সমাধানের জন্য ‘কার্যকর সমন্ব্বিত সীমান্ত ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা’ বাস্তবায়ন নিয়েও আলোচনা হবে এবারের সম্মেলনে।

By Abraham

Translate »