Advertisements

বিয়ে মানেই দুজন একলা মানুষের এক হওয়া। সব একাকিত্বের অবসান ঘটায় বিয়ে। তবে অনেকেই এমন আছেন যারা মনে করেন, বিয়ে মানেই ঝামেলা ছাড়া আর কিছু না!

বিয়ে নিয়ে এমন ধারণা থাকার কারণে এতদিন পর্যন্ত বিয়ের পিড়িতেই বসেননি অনেকেই। তবে জানলে অবাক হবেন, বিয়ের মাধ্যমে বুড়ো বয়সের মারাত্মক সব রোগ থেকে রেহাই মিলবে আপনার!

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে বিবাহিত পুরুষদের বৃদ্ধ বয়সে ডিমেনশিয়া বা আলঝেইমার্স-এর মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একা থাকা পুরুষদের তুলনায় ৪০ শতাংশ কম!

আট লাখ বিবাহিত ও অবিবাহিত পুরুষের উপর গবেষণা চালিয়ে এই তথ্য বের করেছেন ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের রিচার্স ফেলো এবং মনরোগবিদ অ্যান্ড্রু সমারল্যান্ড।

তার ভাষ্যে, ‘আমাদের গবেষণায় এটা ভালোভাবেই প্রমাণিত হয়েছে যে সুস্থতার জন্য বিয়ে একটি জরুরি বিষয়। অবিবাহিত পুরুষেরা বৃদ্ধ বয়সে বিবাহিতদের চেয়ে বেশি রোগে ভোগেন।’

এই গবেষণায় বিয়ের কাবিন ছাড়াও যারা দীর্ঘদিন একই ছাদের নিচে বাস করছেন, তাদেরকেও ‘দম্পতি’ হিসেবে ধরা হয়েছে।

গবেষণাটিতে উঠে এসেছে মজার আরেকটি তথ্য। ১২টি দেশের পুরুষদের উপর করা সমীক্ষায় দেখা গেছে, ডিভোর্সি পুরুষদের আবার অবিবাহিতদের চেয়েও মানসিক অসুস্থতায় ভোগার হার বেশি। অন্যদিকে যেসব পুরুষের স্ত্রী মারা গেছেন, তাদের ক্ষেত্রে ডিমেনশিয়া বা আলঝেইমার্স-এর বদলে ম্যানিক ডিপ্রেসিভ ডিসর্ডার বা বাইপোলারিটি দেখা যায় বেশি।

তাই পুরুষের সুস্থতার জন্য বিয়ে খুবই জরুরি। বিয়ে করে সুস্থ জীবন যাপন করাই সব পুরুষের জন্য উত্তম।

By Abraham

Translate »