Advertisements

ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে গেল ম্যাচে চোট পেয়েছিলেন রাজশাহী রয়ালসের নিয়মিত অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। তাই বৃহস্পতিবার রংপুর রেঞ্জার্সের বিপক্ষে খেলা হয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই তারকার। অধিনায়কের দায়িত্ব সামলেছেন শোয়েব মালিক। সিলেট পর্বের প্রথম দিনে প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয় রাজশাহী রয়ালস ও রংপুর রেঞ্জার্স। এর আগে আট ম্যাচে ৫ জয়ে শেষ চারের জায়গা মোটামুটি নিশ্চিত করে ফেলেছে রাজশাহী। অন্যদিকে রাজশাহীর প্রতিপক্ষ রংপুর রেঞ্জার্সের আজকের ম্যাচটায় জয়ের বিকল্প ছিল না।

দুপুরে টস জিতে রাজশাহীকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় রংপুর অধিনায়ক শেন ওয়াটসন। ব্যাট করতে নেমে রাজশাহীর দুই ওপেনার লিটন দাস ও আফিফ হোসেন মিলে ৪ ওভার পাঁচ বলে যোগ করেন ৫১ রান। পঞ্চম ওভারের শেষ বলে মুস্তাফিজর রহমানের বলে ১৫ রানে ১৯ রান করে উইকেট-রক্ষকের হাতে ক্যাচ দেন লিটন। পরের ওভারের চতুর্থ বলে মোহাম্মদ নাবীর বলে বিদায় রের ১৭ বলে ৩২ রান করা আফিফ। শোয়েব মালিকের ব্যাটে ৩৭ রান আসলেও খেলেছেন ৩১ বল। ইরফান শুকুর ২০ বলে করেন ২০ রান। ১৬ ওভার চার বলে যখন রাজশাহীর সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৩২ রান, তখন ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন রাবি বোপারা। তার ২৯ বলে ৫০ রান (চারটি চার ও তিনটি ছয়) ও মোহাম্মদ নেওয়াজের ৯ বলে ১৫ রানে ভর করে ৪ উইকেটে ১৭৯ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী। গত ম্যাচে ৪ উইকেট পাওয়া তাসকিন আহমেদ আজ ছিলেন খড়ুছে। তাসকিন ৩৭ রানে উইকেট শূন্য, মুস্তাফিজ ৪১ রান দিলেও নিয়েছেন ২ উইকেট। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা বজায় রাখেন শেন ওয়াটসন। চলতি বিপিএলে ৫, ১, ৭, ২ আর আজ করেন ২ রান।
ওয়াটসন টানা ব্যর্থ হলেও নাঈম শেখ বজায় রেখেছেন ধারাবাহিকতা। আজ করেছেন ২৭ রান। এছাড়া ক্যামেরন ডেলপোর্টের ১৪, টম অ্যাবেলের ২৯ ছাড়া ফজলে মাহমুদ করেছেন সর্বোচ্চ ৩৪ (২৬ বল) রান। শেষদিকে আল-আমীন জুনিয়রের ব্যাটে আসে ১৮ রান। কিন্তু হতচ্ছড়া ব্যাটিংয়ে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৪৯ রান পর্যন্ত তুলতে পারে রংপুর রেঞ্জার্স। ৩০ রানে হেরে শেষ চারের আগে ছিটকে পড়ার তালিকায় এক পা দিয়ে ফেলল রংপুর। এদিকে রাজশাহী জায়গা করে নিয়েছে পয়েন্ট টেবিলের ১ নম্বরে।

By Abraham

Translate »