Advertisements

প্রেমিকার করা ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুর রকিব খান বাপ্পীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

শুক্রবার বিকালে শুনানি শেষে ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী এ আদেশ দেন।

বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এসআইয়ের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাতে শেরেবাংলা নগর থানায় ধর্ষণ মামলা করেন এসআইয়ের প্রেমিকা। গভীর রাত পর্যন্ত দফায় দফায় ওসির কক্ষে বসে দুইপক্ষ। কিন্তু কোনোভাবেই সমাধান হয়নি। বাপ্পীর প্রতারণার কারণে প্রেমিকা ধর্ষণের মামলা করবেন বলে অনড় থাকেন। পরে মামলাটি নিতে বাধ্য হয় পুলিশ। ওই মামলায় অভিযুক্ত এসআইকে আটক দেখিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার এসআই রেজাউল করিম আসামিকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। অপরদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জামিন শুনানির আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আসামিকে কারাগারে পাঠিয়ে আগামী ৭ জানুয়ারি জামিন শুনানির দিন ধার্য করেন।

পাঁচ বছর আগে ওই তরুণীর সঙ্গে এসআই বাপ্পীর প্রেমের সম্পর্ক হয়। বিয়ের কথা বলে বাপ্পী একাধিকবার তরুণীকে ধর্ষণ করেন। আড়াইবছর আগে এসআই হিসেবে নিয়াগ পাওয়ার পর সম্প্রীতি বিয়ে না করার জন্য টালবাহানা শুরু করে। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও ধারণ করা ও তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ তরুণীর। বাপ্পীর গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের তারাইলে।

By Abraham

Translate »